বিজ্ঞাপন

করোনা: শীর্ষ রিপাবলিকানরা হোয়াইট হাউজ এড়িয়ে চলছেন

October 9, 2020 | 8:16 am

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পসহ তার আশেপাশের অন্তত ৩৪ জন নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর এমনিতেই হোয়াইট হাউজের অবস্থা সঙ্গীন। তার মধ্যে, করোনা মোকাবিলার পদ্ধতি মনঃপুত না হওয়ায় রিপাবলিকান পার্টির শীর্ষ নেতারা হোয়াইট হাউজ এড়িয়ে চলছেন বলে গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (৯ অক্টোবর) বিবিসি'র এক প্রতিবেদনে কেনটাকি অঙ্গরাজ্যের সিনেটর এবং ৭৪ বছর বয়সী রিপাবলিকান মিচ ম্যাককোনেলকে উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে - তিনি ৬ আগস্টের পর থেকে হোয়াই হাউজমুখো হচ্ছেন না। এসময়ের মধ্যে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে প্রয়োজনীয় যোগাযোগ তিনি টেলিফোনেই সারছেন বলে জানিয়েছেন।

এর আগে, ফার্স্টলেডি মেলানিয়া ট্রাম্প, প্রেস সচিব কেইলি ম্যাকনানি, উপদেষ্টা স্টিফেন মিলারসহ রিপাবলিকান সিনেটর মাইক লি এবং থম টিলিস হোয়াইট হাউজের এক আয়োজনে অংশ নিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন

এছাড়াও, ওই আয়োজনে অংশ না নিয়েও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন আরেক রিপাবলিকান সিনেটর রন জনসন।

এদিকে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে কেনটাকি'র সিনেটর ম্যাককোনেল বলেছেন, মাস্ক ব্যবহার এবং শারীরিক দূরত্ব মেনে চলা ব্যতীত করোনা ঠেকানোর কোনো উপায় এখন পর্যন্ত নেই। তাই শুরু থেকেই তিনি স্রোতের বিপরীতে গিয়ে মাস্ক ব্যবহারের কথা জোরেশোরে উচ্চারণ করে আসছেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, করোনা মোকাবিলায় বিধিনিষেধ মেনে চলার ক্ষেত্রে হোয়াইট হাউজ শুরু থেকেই উদাসীনতা দেখিয়েছে। এখন তারা ওই উদাসীনতার ফল পাচ্ছে বলে তিনি মনে করেন।

অন্যদিকে, গত সপ্তাহের শুরুতে ট্রাম্প করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হওয়ার পর থেকেই হোয়াইট হাউজে তার সংস্পর্শে আসা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের র‍্যাপি করোনা টেস্টের আওতায় আনা হচ্ছে বলে জানিয়েছে বিবিসি'র হোয়াইট হাউজ সংবাদদাতা।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু, মাস্ক ব্যবহার এবং শারীরিক দূরত্ব মেনে চলার ক্ষেত্রে হোয়াইট হাউজ এখনও ততটা কঠোর নয় বলে বিবিসি'র প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

অপরদিকে, বৈশ্বিক মহামারি কোভিড-১৯ মোকাবিলার ক্ষেত্রে ট্রাম্প প্রশাসন সম্পূর্ণ ব্যর্থ বলে অভিযোগ করে আসছে ডেমোক্রেট দল। সম্প্রতি গণমাধ্যমের সামনে খোদ হোয়াইট হাউজে করোনা মোকাবিলায় অব্যবস্থাপনার চিত্র ফলাও করে প্রচার হওয়ার ব্যাপারটি, নভেম্বরে অনুষ্ঠেয় মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন-২০২০ কে প্রভাবিত করবে বলে বিশ্লেষকরা মত দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন