শুক্রবার ২৪ মে, ২০১৯ ইং , ১০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ রমজান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

নেপালে ইউএস-বাংলা বিধ্বস্তে নিহত অন্তত ৫০

মার্চ ১২, ২০১৮ | ৭:১৮ অপরাহ্ণ

সারাবাংলা ডেস্ক

নেপালের কাঠমান্ডুতে ঢাকা থেকে যাওয়া ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের যাত্রীবাহী উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে অন্তত ৫০ জন নিহত হয়েছেন। তবে দেশটির ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উদ্ধারকারী দলের নেতৃত্বে থাকা নেপালের সেনাবাহিনীর একজন মুখপাত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স ও বিবিসিসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে এ দুর্ঘটনায় অন্তত ৪৯ জন নিহত হয়েছেন।

ত্রিভুবন এয়ারপোর্ট স্থানীয় সময় ২টা ২০ মিনিটে বিএস-২১১ ফ্লাইটটি অবতরণের মুখে বিধ্বস্ত হয়। ঘটনার পরপরই বিমান বন্দর থেকে একজন প্রত্যক্ষদর্শী সারাবাংলাকে ফ্লাইটটি বিধ্বস্ত হওয়ার খবর টেলিফোনে জানান।

নেপালের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম থেকেও এই দুর্ঘটনার খবর প্রকাশিত হতে থাকে। সবশেষ তথ্যে জানা যাচ্ছে- ফ্লাইটিতে ৬৭ জন আরোহী ছিলেন। আর ক্রু ছিলেন ৪ জন। দেশটির ট্যুরিজম মিনিস্ট্রিম যুগ্নসচিব সুরেশ আচার্যের বরাত দিয়ে কাঠমাণ্ডু পোস্ট জানায়, আরোহীদের মধ্যে ৩৭ জন পুরুষ ২৭ জন নারী ও তিনটি শিশু ছিলো।

নেপালের সিভিল অ্যাভিয়েশনের মহাপরিচালক সঞ্জীব গৌতমকে উদ্ধৃত করে কাঠমাণ্ডু পোস্ট জানায়, অবতরণের সময়ে বেশ অস্বাভাবিক আচরণ দেখা যায় ফ্লাইটিতে। সেটি অনেকটা নিয়ন্ত্রণহীন ছিলো। রানওয়ের দক্ষিণ দিকে অবতরণের অনুমতিও দেওয়া হয়েছিলো। কিন্তু দক্ষিণ দিকের অনুমতি নিয়ে সেটি উত্তর দিকের রানওয়েতে ল্যান্ড করে।

তিনি সন্দেহ করছেন, কোনও কারিগরি ত্রুটির কারণেই এমনটা ঘটেছে। তবে দুর্ঘটনার প্রকৃত কারণ এখনো জানা যায়নি।

টেলিভিশনের খবরে আরও বলা হয়েছে, উড়োজাহাজটি ক্যাপ্টেন বেঁচে আছেন। ঢাকা থেকে পাওয়া তথ্যে জানা যাচ্ছে- ক্যাপ্টেন হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন আবেদ সুলতান। আর পাইলটের সহকারী হিসাবে ছিলেন একজন নারী। যিনি মারা গেছেন বলেই ধারনা করা হচ্ছে।

ত্রিভুবন বিমান বন্দর কর্তৃপক্ষ ও নেপাল সেনাবাহিনীর সদস্যরা উদ্ধার কাজ চালান। দুর্ঘটনার পর থেকেই বিমানবন্দরের সব উড়ান সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে।

এর আগে ১৯৯২ সালে ত্রিভুবন বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হলে থাই এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটের ৫৬ জন আরোহীর সকলেই নিহত হন।

সারাবাংলা/এমআই/এসবি

দুই প্রধানমন্ত্রীর ফোনালাপ, সাহায্য পাঠাতে চাইলেন শেখ হাসিনা
এশিয়ার নিকৃষ্টতম বিমানবন্দর ছিল ত্রিভুবন
কন্ট্রোলরুমের ভুলের কারণে দুর্ঘটনা: ইউএস-বাংলা
পাইলটের ভুলেই দুর্ঘটনা, দাবি নেপাল কর্তৃপক্ষের
বিধ্বস্ত উড়োজাহাজে ছিলেন বৈশাখী টিভির সাংবাদিক ফয়সাল
বেঁচে যাওয়া যাত্রীর বর্ণনা, যেভাবে বিধ্বস্ত হয় উড়োজাহাজ
কাঠমাণ্ডু মেডিকেল কলেজে ভর্তি আহতদের তালিকা
ত্রিভুবনে ইউএস-বাংলা বিধ্বস্তে নিহত ৪০, হাসপাতালে ২৫
ইউএস-বাংলার বিধ্বস্ত ফ্লাইটের যাত্রীদের নাম
খোঁজ নেই যাত্রীদের, উদ্বিগ্ন স্বজনরা
কর্তৃপক্ষ চাইলেই নেপালে যাবে প্রতিনিধি দল
রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক
তদন্ত সাপেক্ষে দুর্ঘটনার কারণ জানা যাবে : ত্রাণমন্ত্রী
সুনির্দিষ্ট তথ্য নেই সিভিল এভিয়েশনের কাছে
নেপালে বাংলাদেশ দূতাবাসের হটলাইন
ত্রিভুবনে ইউএস-বাংলা বিধ্বস্তে নিহত ৪০, হাসপাতালে ২৫

 

Advertisement
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন