বিজ্ঞাপন

ঢাবি শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ মামলায় ছাত্র পরিষদের ২ নেতা কারাগারে

October 15, 2020 | 7:37 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্রী ধর্ষণ ও ধর্ষণে সহযোগিতা করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের দুই নেতার রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) শুনানি শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাদবীর ইয়াসির আহসান চৌধুরী এ আদেশ দেন।

আসামিরা হলেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সাইফুল ইসলাম ও সংগঠনের ঢাবি শাখার সহ-সভাপতি মো. নাজমুল হুদা।

বিজ্ঞাপন

দুইদিনের রিমান্ড শেষে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কোতোয়ালী জোনাল টিমের পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মো. ওয়াহিদুজ্জামান আসামিদের আদালতে হাজির করে কোতয়ালী থানায় দায়ের করা মামলায় কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক তাদের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে, গত ১২ অক্টোবর আসামিদের দুই দিনের রিমান্ডে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন ঢাকার সিএমএম আদালত।

বিজ্ঞাপন

গত ১১ অক্টোবর দিনগত রাতে রাজধানীর মগবাজার ও আজিমপুরে অভিযান চালিয়ে এজাহারভুক্ত ওই দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়।

ধর্ষণের শিকার ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থীর করা মামলায় মোট আসামি ছয়জন। এদের মধ্যে প্রাথমিক সত্যতার ভিত্তিতে দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

মামলার অপর আসামিরা হলেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নাজমুল হাসান সোহাগ (২৮), একই সংগঠনের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন (২৮), বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সাইফুল ইসলাম (২৮), বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সভাপতি নাজমুল হুদা (২৫) এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহিল কাফি (২৩)।

সারাবাংলা/এআই/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন