বিজ্ঞাপন

তোমাদের স্বামীদের কাজে ফেরাব, নারীদের উদ্দেশে ট্রাম্প

October 28, 2020 | 8:26 pm

রোকেয়া সরণি ডেস্ক

নানা সময়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আমেরিকার জাতীয় নির্বাচনের মাত্র এক সপ্তাহ আগে বিতর্কিত মন্তব্য করে আবারও আলোচনায় ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি এক নির্বাচনি প্রচারণার র‍্যালিতে নারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘তোমাদের স্বামীরা কাজে ফিরে যেতে চায়। আমরা তাদের কাজে ফেরাব। সবাই তাই চায়।’ করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে এই কাজ করা হবে বলে প্রতিজ্ঞাও করেন তিনি।

মিশিগানের রাজধানী ল্যাঞ্চিংয়ে মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) নির্বাচনি প্রচারণা চালানোর সময় নারী ভোটারদের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ঘিরে যতগুলো জরিপ অনুষ্ঠিত হয়েছে তার প্রতিটিতে দেখা গেছে নারী ভোটাররা ট্রাম্পের চেয়ে বাইডেনকে বেশি পছন্দ করছেন। বিশেষ করে শহরতলির নারীরা ডেমোক্র্যাট প্রার্থী বাইডেনকে ভোট দিতে চান।

সেপ্টেম্বরে করা এক জরিপে দেখা গেছে শহরতলীর নারীরা ট্রাম্পের করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণের পদ্ধতিকে ‘লোকঠকানো’ বলে মনে করছেন। বিশেষজ্ঞরা তাই মনে করছেন, করোনাভাইরাস ইস্যুতে ট্রাম্পের নেওয়া পদক্ষেপের কারণেই তার ভোট কমতে পারে, বিশেষত নারীদের ভোট।

বিজ্ঞাপন

এদিকে গত মাসে এক নির্বাচনি সমাবেশে ট্রাম্প নারীদের মধ্যে তার জনপ্রিয়তায় পিছিয়ে থাকা বিষয়ে কৌতুক করেছিলেন যাদের সহায়তায় তিনি ২০১৬ সালের নির্বাচনে জয়লাভ করেছিলেন। মজার উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘শহরতলীর নারীরা, আপনারা কি আমাকে ভোট দেবেন? আমিই কিন্তু আপনাদের পিছিয়ে পড়া এলাকাগুলোকে টেনে তুলেছি, ঠিক আছে?’

চলতি বছরের আগস্টে ডেট্রয়েট নিউজ জানিয়েছিল মহামারির সময় কর্মহীন হওয়া অর্ধেক কর্মীকে ট্রাম্প প্রশাসন কাজে ফিরিয়েছে। এদিকে এপ্রিলের শেষের দিকে মিশিগান কর্তৃপক্ষ জানায়, অতিমারির কারণে লকডাউন চলায় মার্চের ১৫ তারিখের মধ্যে ১২ লাখ মানুষ কাজ হারায়।

বিজ্ঞাপন

এদিকে লকডাউন জারি রাখায় ট্রাম্প মিশিগান সরকারের কঠোর সমালোচনা করেন। ট্রাম্প এবং রিপাবলিকান শিবির শুরু থেকেই লকডাউনের বিরুদ্ধে ছিলেন। এখন নির্বাচনি প্রচারণায় তাই অর্থনীতি পুনরুদ্ধারকেই গুরুত্ব দিচ্ছেন তারা। মিশিগানে নারীদের উদ্দেশ্যে দেওয়া এই বক্তব্য সে কথারই প্রতিফলন বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বোদ্ধারা।

সারাবাংলা/আরএফ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন