বিজ্ঞাপন

কোহলিদের হারিয়ে শীর্ষে মুম্বাই

October 29, 2020 | 1:09 am

স্পোর্টস ডেস্ক

ব্যাট হাতে ব্যর্থ কোহলি আর ডি ভিলিয়ার্স আর তাতেই কপাল পুড়ল ব্যাঙ্গালোরের। মুম্বাইয়ের বিপক্ষে পাঁচ উইকেটের ব্যবধানে হেরে হাতছাড়া হয়েছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান। আগে ব্যাট করে মুম্বাইকে ১৬৫ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় কোহলিরা জবাবে ৫ বল আর ৫ উইকেট হাতে রেখেই জয় ছিনিয়ে নিয়ে শীর্ষস্থান দখল করে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

বিজ্ঞাপন

টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা উড়ন্ত করেছিল ব্যাঙ্গালোর। উদ্বোধনী জুটিতে দেবদ্যুত পাড্ডিকেল এবং জশ ফিলিপ মিলে তোলেন ৭১ রান। ইনিংসের ৮ম ওভারের ৫ম বলে ফিলিপ ব্যক্তিগত ৩৩ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন। এরপর বিরাট কোহলির সঙ্গে ২৪ রানের জুটি পাড্ডিকেলের তবে সেখানে কোহলির অবদান মাত্র ৯ রান। ১২তম ওভারে কোহলি যখন ফিরছেন তখন স্কোরবোর্ডে দলীয় রান ৯৫। নিশ্চিত বড় সংগ্রহের দিকেই এগোচ্ছিল ব্যাঙ্গালোর।

চতুর্থ উইকেটে এবি ডি ভিলিয়ার্স উইকেটে আসলে পাড্ডিকেল তার সঙ্গে জুটি গড়ে তোলেন ৩৬ রান। এরপর ভিলিয়ার্স ১৫ রানে ফেরেন। দলীয় রান ১৩১ থেকে ১৩৮ এই সাত রানের ভেতরেই ডি ভিলিয়ার্স, শিভম দুবে, পাড্ডিকেল এবং ক্রিস মরিসকে হারায় ব্যাঙ্গালোর। আর মাত্র সাত রানে তিন ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে বড় সংগ্রহের আশাও শেষ হয়ে যায় ব্যাঙ্গালোরের। শেষ পর্যন্ত গুরকিত সিং এবং ওয়াশিংটন সুন্দরের ২৬ রানের জুটিতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬৪তে থামে ব্যাঙ্গালোর। মুম্বাইয়ের হয়ে ১৪ রানে ৩ উইকেট নেন যশপ্রীত বুমরা।

বিজ্ঞাপন

জবাবে ব্যাট করতে নেমে সূর্যকুমার যাদব প্রায় একাই মুম্বাইকে জয় এনে দেন। ব্যাত হাতে মাত্র ৪৩ বলে ৩ ছক্কা ও ১০ চারে ৭৯ রানের অনবদ্য এক ইনিংস খেলেন সুর্যকুমার। আর তার ব্যাটেই ভর করে নির্ধারিত ওভারের ৫ বল হাতে রেখেই ৫ উইকেট হারিয়ে ১৬৬ রান তুলে ফেলে মুম্বাই। আর তাতেই নিশ্চিত হয় শীর্ষস্থান। সুর্যকুমার ছাড়া ইশান কিশানের ব্যাট থেকে আসে মুম্বাইয়ের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৫ রান, এছাড়া কুইন্টন ডি কক করেন ১৮ রান।

ব্যাঙ্গালোরের হয়ে দুটি করে উইকেট তুলে নেন মোহাম্মদ সিরাজ এবং যুযবেন্দ্র চাহাল।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন