বিজ্ঞাপন

জনস্বাস্থ্য পরিচালকের ভুল স্বীকার, মন্ত্রণালয় থেকে শোকজ

October 29, 2020 | 10:12 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ইসলাম ধর্মাবলম্বী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পোশাক পরিধান ও পর্দার বিধান মেনে চলা সম্পর্কিত নির্দেশনাটি জারি করা সঠিক ছিল না বলে স্বীকার করে নিয়েছেন জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. মুহাম্মদ আব্দুর রহিম। দ্বিতীয় এক বিজ্ঞপ্তিতে তিনি আগের বিজ্ঞপ্তিটি বাতিল করেছেন।

বিজ্ঞাপন

এদিকে, জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক কোন বিধান অনুযায়ী তার প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পোশাক পরিধান ও পর্দার বিধান মেনে চলার নির্দেশনা দিয়েছেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় তা জানতে চেয়েছে। মন্ত্রণালয় থেকে তিন দিনের সময় দিয়ে পরিচালককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন- পুরুষদের টাখনুর ওপরে পোশাক, নারীদের হিজাব পরার নির্দেশ

বিজ্ঞাপন

বুধবার (২৮ অক্টোবর) জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. আব্দুর রহিম পোশাক ও পর্দা সংক্রান্ত ওই বিজ্ঞপ্তিটি জারি করেন। এতে ইনস্টিটিউটে কর্মরত সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে অফিস চলাকালীন মোবাইল ফোন সাইলেন্ট মোডে বা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের জন্য পুরুষদের টাখনুর ওপরে ও নারীদের হিজাবসহ টাখনুর নিচে পোশাক পরা আবশ্যক। ইসলাম ধর্মাবলম্বী নারী-পুরুষ সবাইকে পর্দা মেনে চলার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ওই আদেশে।

বিজ্ঞাপন

বুধবার জারি করা হলেও বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশ পায়। বিজ্ঞপ্তিটি নিয়ে বিভিন্ন মহলে সমালোচনার মুখে সন্ধ্যায় নতুন এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে আগের বিজ্ঞপ্তিতে বাতিল করেন ডা. আবদুর রহিম। বিজ্ঞপ্তিতে তিনি বলেন, এই ইনস্টিটিউট থেকে জারি করা বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানের মুসলিম ধর্মাবলম্বী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পোশাক পরিধান সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিটি বাতিল করা হলো।

আগের বিজ্ঞপ্তির জন্য দুঃখপ্রকাশ ও ক্ষমাপ্রার্থনা করে নতুন বিজ্ঞপ্তিতে ডা. আব্দুর রহিম বলেন, আগের বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশিত সংবাদটির জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখিত এবং সবার কাছে এই অনিচ্ছাকৃত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের জন্য অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে দুঃখপ্রকাশ করছি। সেইসঙ্গে গোটা জাতির কাছে বিনীতভাবে ক্ষমা প্রার্থনা করছি এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের ভুল হবে না।

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, বিজ্ঞপ্তিটি নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর সেটি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নজরে আসে। তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ও অধিদফতরের মহাপরিচালককে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেন।

সে অনুযায়ী স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। তিন দিনের মধ্যে তাকে এই শোকজ নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়।

বিজ্ঞাপন

মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের উপসচিব (পার-২) শারমিন আক্তার জাহানের সই করা নোটিশে জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালককে বলা হয়, তিনি অফিস চলাকালীন কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মোবাইল ব্যবহার এবং ইসলাম ধর্মাবলম্বী নারী-পুরুষদের পোশাক ও পর্দা মেনে চলা বিষয়ক বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন। বিজ্ঞপ্তিটি কোন বিধি বলে এবং কোন কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নিয়ে জারি করা হয়েছে— সেটি স্পষ্ট করে ব্যাখ্যা আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে পাঠাতে বলা হয়েছে।

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন