বিজ্ঞাপন

টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের আগে ব্যাট হাসল ছোট তামিমের

November 10, 2020 | 5:50 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

তানজিদ হাসান তামিম স্বপ্ন দেখতেন একদিন বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে সফল ব্যাটসম্যান তামিম ইকবালের সঙ্গে ওপেন করবেন। তামিম ইকবাল অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী তানজিদের 'আইডল'। দুজনের ডাকনাম তামিম বলেই নয়, আরও কতো মিল। দুজনেই বাঁহাতি, দুজনেই ওপেনার। ক্যারিয়ারের শুরুর তামিমের মতো তানজিদও আক্রমণাত্মক। বিসিবি প্রেসিডেন্ট'স কাপে স্বপ্ন পূরণ হয়েছিল তানজিদের।

বিজ্ঞাপন

'ছোট তামিম' হিসেবে পরিচিতি পাওয়া এই তরুণ ওপেনার তামিম ইকবালের সঙ্গে ওপেনিং করার সুযোগ পেয়েছিলেন। কিন্তু পরফরম্যান্স করলেন যাচ্ছে-তা। তানজিদ এতোটাই বাজে খেললেন যে বাদ পড়তে হলো তিন ম্যাচ পরই। স্বপ্নের নায়কের সঙ্গে ওপেনিং করতে নেমে রান না পাওয়া তামিমের ব্যাট আজ হেসেছে।

কদিন পর পাঁচটি দলকে নিয়ে জাকজমক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট শুরু করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তার আগে নিজেদের মধ্যে ভাগ হয়ে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলছেন এইচপি দলের ক্রিকেটাররা। সেখানে আজ দারুণ একটা ইনিংস খেলেছেন 'ছোট তামিম'। রান পেয়েছেন প্রেসিডেন্ট'স কাপে প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারা আকবর আলিও।

বিজ্ঞাপন

টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের আগে ব্যাট হাসল ছোট তামিমের

মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) মিরপুরে আফিফ হোসেন ধ্রুবর টিম 'এ'কে ১০০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে তৌহিদ হৃদয়ের টিম 'বি'। প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে ১৯৪ রানে বিশাল সংগ্রহ গড়ে টিম 'বি'। তানজিদ ওপেনিংয়ে নেমে ৭৩ রান করেছেন মাত্র ৪৬ বল খেলে। তার ইনিংসে চারের মার ৬টি, ছক্কা ৫টি। পাঁচে নেমে ২০ বলে ৪৭ করেছেন আকবর। বাংলাদেশকে যুব বিশ্বকাপ জেতানো অধিনায়ক এই রান করতে চার মেরেছেন ২টি, আর ছক্কা ৪টি।

বিজ্ঞাপন

টিম 'এ'র হয়ে ৪ ওভারে ২৩ রান খরচায় তিন উইকেট নিয়েছেন আফিফ হোসেন ধ্রুব। এছাড়া শফিউল ইসলাম নিয়েছেন ৪৬ রানে ২ উইকেট।

জবাব দিতে নেমে ১৭ ওভারে ৯৪ রানেই গুটিয়ে গেছে টিম 'এ'। শুরু থেকেই যাওয়া-আসার মিছিলে মেতে উঠা দলটির পক্ষে সর্বোচ্চ ২৮ করেছেন নাঈম শেখ। ওপেনার হিসেবে পরিচিত নাঈম আজ ছয় নম্বরে নেমে ২২ বলে ১টি করে চার ছয়ে এই রান করেছেন। এছাড়া দলটির পক্ষে দুই অঙ্কের কোটা পেরুতে পেরেছেন কেবল ওপেনার শাহাদাত হোসেন (১৮) ও পেসার সুমন খান (১৩)।

বিজ্ঞাপন

টিম 'বি'র পক্ষে রাজা ২১ রানে তিন উইকেট নিয়েছেন। দুটি করে উইকেট নিয়েছেন সাহিন আলম, রিশাদ হোসেন ও মুকিদুল ইসলাম।

সারাবাংলা/এসএইচএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন