বিজ্ঞাপন

সড়কে গেল আরও ২ প্রাণ

November 16, 2020 | 5:40 pm

সারাবাংলা ডেস্ক

দেশে সড়ক দুর্ঘটনা বেড়েই চলেছে। সড়কে প্রায় প্রতিদিনই মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। সোমবার (১৬ নভেম্বর) পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় আরও দুইজন মারা গেছেন। সারাবাংলার জেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্যের ভিত্তিতে এ সংক্রান্ত খবর তুলে ধরা হলো:

বিজ্ঞাপন

পঞ্চগড়

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার ময়দানদিঘী এলাকায় পুলিশ পিকআপ ভ্যান, ট্রাক ও মোটসাইকেলের ত্রিমুখী সংঘর্ষে মনোয়ার হোসেন (৩৮) নামে ট্রাকচালক মারা গেছেন। এ ঘটনায় পুুুুুলিশ সদস্য, মোটরসাইকেল আরোহী, পিকআপের চালক ও চালকের সহকারীসহ কমপক্ষে আরও ৫ জন আহত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

সোমবার দুপুরে জেলার বোদা উপজেলাধীন ময়দানদিঘী দিঘী হাইওয়ে ফাঁড়ির সামনে পঞ্চগড়-বোদা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, নিহত ট্রাকচালক মনোয়ার হোসেন মেহেরপুর জোলার ভোমদহ উপজেলার জোড়পুকুড়িয়া ইউনিয়নের গাংনী এলাকার মৃত মোকাদ্দেস বিশ্বাসের ছেলে। আহতরা হলেন- জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলার শালবাহান জগিগঞ্জ এলাকার সফিউল ইসলামের ছেলে নুরুল ইসলাম (৪০), বোদা উপজেলার ময়দান দীঘি ঝাকুয়া পাড়া এলাকার সজর আলী ছেলে ফজলুর রহমান (৪৫), একই এলাকার বা জফিউদ্দিনের ছেলে
বাবুল হোসেন (৩৭) ও পুলিশ সদস্য মোরশেদ (৩৮) ও এরশাদ হোসেন (৩৫)।

বিজ্ঞাপন

বোদা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আবু সায়েম মিয়া সড়ক দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

বরিশাল

বিজ্ঞাপন

বরিশালের উজিরপুর উপজেলার গুঠিয়া ইউনিয়নের সাইনবোর্ড বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবৈধ বালুবাহী ট্রলিচাপায় পারুল বেগম (৭০) নামের বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৪ জন।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে ওই এলাকায় বরিশাল-নেছারাবাদ (স্বরূপকাঠী) সড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

নিহত পারুল বেগম ডহড়পারা গ্রামের কাদের হাওলাদারের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালে উপজেলার সাইনবোর্ড বাসস্ট্যান্ড এলাকায় রাস্তার ওপর পারুল বেগম অপেক্ষা করছিলেন। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগতির অবৈধ ট্রলি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাকে চাপা দিয়ে পার্শ্ববর্তী একটি দোকানে ঢুকে পড়ে । এতে ট্রলিচালক, হেলপার এবং রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা স্থানীয় পনির শিকদার ও আহসান আহত হন। ঘটনার পরপরই উজিরপুর পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) রুহুল আমিন ঘটনাস্থলে উপস্থিত স্থানীয়দের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে বানারীপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক পারুল বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন।

সারাবাংলা/টিসি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন