বিজ্ঞাপন

হিন্দু প্রতিবেশীর সৎকারে এগিয়ে এলেন মুসলিমরা

November 30, 2020 | 5:27 pm

ফিচার ডেস্ক

গোটা গ্রামে মাত্র একটি হিন্দু পরিবারের বাস। শনিবার (২৮ নভেম্বর) সেই পরিবারের এক বয়জ্যোষ্ঠ সদস্যের মৃত্যু হয়। গ্রামে অন্য কোনো হিন্দু পরিবার না থাকায় সবার সম্মতিতে হিন্দু ধর্মের রীতি অনুযায়ী সৎকারের জন্য মরদেহ কাঁধে তুলে নেন গ্রামের মুসলিম প্রতিবেশীরা। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এমন এক অনন্য নজির দেখা গেল ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের আসানসোলের দেশেরমোহন গ্রামটিতে।

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, মৃত বৃদ্ধের নাম রামধানু রজক (৮০)। ২৮ নভেম্বর তার মৃত্যুর পর গ্রামে খবর রটে। গ্রামের বাসিন্দারা রামধানু রজকের ছেলে-মেয়েদের খবর দেন। পরদিন সকালে এক ছেলে গ্রামে আসেন। তবে অন্য ছেলে মেয়েরা ভিন্ন রাজ্যে বাস করায় সময় মতো আসতে পারেননি তারা। এদিকে গ্রামে হিন্দু ধর্মাবলম্বী লোক না থাকায় হিন্দু রীতি অনুযায়ী সৎকারে শঙ্কা দেখা দেয়। ফলে গ্রামের মুসলিম বাসিন্দারাই রামধানু রজকের হিন্দু রীতি অনুযায়ী সৎকার করেন।

স্থানীয় বাসিন্দা শেখ মুবারক জানান, আমাদের গ্রামের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সারাদেশের জন্য দৃষ্টান্ত। রামধানু রজক হিন্দু হলেও আমাদের গ্রামের একজন সম্মানিত ব্যক্তি ছিলেন। দেশেরমোহন গ্রামের মানুষ প্রমাণ করল, কেউ যে কোনো ধর্মেরই হোক, মানুষ মানুষের দাঁড়াতে পারে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আইই

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন