বিজ্ঞাপন

শুক্রবার বসছে পদ্মাসেতুর ৪০তম স্প্যান

December 3, 2020 | 8:11 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: পদ্মায় এবার শেষ দুটি স্প্যানের একটি শুক্রবার সকালে খুঁটিতে তোলা হবে। এরপর বিজয় দিবসের আগেই বসবে সবশেষ ৪১তম স্প্যান। পদ্মাসেতু নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান জানায়, ৩ বছর শেষে পদ্মাসেতুতে স্প্যান বসানোর কাজ ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার ৪০ তম স্প্যান কন্সট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে বের করে খুঁটির কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

প্রকল্প এলাক ঘুরে দেখা গেছে, পদ্মায় নদীতে এখন কেবল ফাঁকা রয়েছে একটি খুঁটি। যে খুঁটির দুইপাশে দুটি স্প্যান তুলে দিলে পুরো পদ্মাসেতু একসঙ্গে দেখা যাবে। চাইলে হেঁটে পারও হওয়া যাবে সেতু দিয়ে।

বিজ্ঞাপন

পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষ জানায়, সবশেষ ৪০ ও ৪১তম স্প্যান বসানোর প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। ফাঁকা মাত্র ৩০০ মিটারে দুটি স্প্যান বসবে।

১৫০ মিটার লম্বা একেকটি স্প্যানে ১০৮ থেকে ১১৫ টুকরো স্টিল জোড়া দেওয়া হয়। স্প্যানের টুকরোগুলো ত্রিভূজ আকৃতির।

বিজ্ঞাপন

এ সব টুকরো টুকরো অংশের ওজন থাকে ১৫ থেকে সবোচ্চ ৯০ টন। অর্ধ কিলোমিটার লম্বা এই শেডের নিচে টুকরোগুলো পেছন থেকে জোড়া দিয়ে সামনের দিকে এগুতে থাকে। সবশেষ জোড়া দেওয়া পর এটি লম্বায় ১৫০ মিটার আকার ধারণ করে। তখন ওজন দাঁড়ায় ২ হাজার ৮০০ টন।

সেতু বিভাগের সচিব বেলায়েত হোসেন জানিয়েছেন, সেতুর ৯০ শতাংশের বেশি কাজ শেষ হয়েছে। স্প্যানের ওপর সড়কপথ নির্মাণের জন্য ২ হাজার ৯১৭টি রোডস্লাবের মধ্যে বসিয়ে দেওয়া হয়েছে ১ হাজার ২৬৫টি। অর্থাৎ অর্ধেক পদ্মাসেতুর সড়কপথ নির্মাণ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আর স্প্যানের ভেতরে রেলপথের জন্য ২ হাজার ৯৫৯টি রেলওয়ে স্লাব বসাতে হবে। এ পর্যন্ত বসেছে ১ হাজার ৮শ ৭০টি। অর্থাৎ অর্ধেকের বেশি রেলস্লাব বসিয়ে দেওয়া হয়েছে।

নতুন বছরে পদ্মাসেতুর সড়ক ও রেলপথের স্লাব বসানোর কাজ এগিয়ে নেওয়া হবে। জুনের মধ্যে সড়ক ও রেলস্লাব দুইু পাড় ছুঁয়ে যাবে। এরপর জুনের শেষ থেকে শুরু হবে সেতুর ফিনিশিং কাজ। ডিসেম্বরে সেতু গাড়ি তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে সরকারের সেতু বিভাগ।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএ/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন