বিজ্ঞাপন

ভ্যাট নিবন্ধন না নিয়ে অনলাইনে ব্যবসা, ভ্যাট ফাঁকিতে মামলা

December 3, 2020 | 10:17 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ভ্যাট নিবন্ধন না নিয়ে ব্যাবসা করায় একটি অনলাইন শপিং প্লাটফর্মে অভিযান পরিচালনা করেছে ভ্যাট গোয়েন্দা। আর ভ্যাট ফাঁকির প্রমাণ পাওয়ায় ভ্যাট গোয়েন্দা প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে ভ্যাট আইনে মামলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে মামলা করা হয় বলে সারাবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন ভ্যাট গোয়েন্দার মহাপরিচালক ড. মইনুল খান।

তিনি জানান, অনলাইন শপিং প্লাটফর্মের নাম শার্টোলজি। অভিযানে দেখা যায়, কোনরকম ভ্যাট নিবন্ধন গ্রহণ ব্যাতিরেকে প্রতিষ্ঠানটি অনলাইনে পণ্য বিক্রয় করে আসছে। শার্টোলজি অনলাইনে মেন্স শার্টস বিক্রির জন্য বিজ্ঞাপন দিয়ে তা বাহক মারফত গ্রাহকের কাছে সরবরাহ করে থাকে। ভ্যাট আইন অনুসারে অনলাইনে এই পণ্য বিক্রয় করতে ৭.৫ % হারে ভ্যাট প্রযোজ্য।

বিজ্ঞাপন

ভ্যাট গোয়েন্দার কাছে ফেসবুকে একজন গ্রাহকের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম সম্পর্কে গোপন সংবাদ সংগ্রহ করা হয়।

মইনুল খান আরও জানান, ভ্যাট গোয়েন্দার একটি দল ১৯ নভেম্বর অভিযানটি পরিচালনা করে। এই অভিযানে শার্টোলজি থেকে প্রতিষ্ঠানের অনলাইন কার্যক্রম সংক্রান্তে বেশ কিছু বাণিজ্যিক কাগজপত্র জব্দ করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এতে দেখা যায়, জুন ২০১৯ থেকে এই প্লাটফর্মে ৬০ লাখ টাকার পণ্য অনলাইনে বিক্রয় করা হয়। এর ওপর নির্ধারিত ৭.৫% হারে ভ্যাট প্রযোজ্য হয় ৪ লাখ ১৬ হাজার টাকা। অথচ আইনি বাধ্যবাধকতা সত্ত্বেও এই শপিং কার্যক্রমের জন্য ভ্যাট নিবন্ধন নেয়নি অনলাইন শার্টোলজি। আর জব্দকৃত কাগজপত্র অনুসারে, অনলাইন প্লাটফর্মটি পণ্য বিক্রয় ও সরবরাহ করে ৪ লাখ ১৬ হাজার টাকা ভ্যাট ফাঁকি দিয়েছে। ভ্যাট ফাঁকির বিষয়টি ঢাকা পশ্চিম ভ্যাট কমিশনারেট নিষ্পত্তি করবে।

ভ্যাটের বিচারিক আদালতে অভিযোগ প্রমাণিত হলে ফাঁকিকৃত ভ্যাট পরিশোধসহ এই পরিমাণের দ্বিগুণ জরিমানা দণ্ড হতে পারে। এনবিআরের নির্দেশে এরকম ভ্যাট ফাঁকি দিয়ে আরো যেসব প্লাটফর্মে ব্যবসা চলছে ভ্যাট গোয়েন্দারা তাদের সম্পর্কে খোঁজ নিচ্ছে এবং অনুসন্ধান শেষে আইনি ব্যবস্থা নেবে বলেও মইনুল খান জানান।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসজে/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন