বিজ্ঞাপন

বাধা উপেক্ষা করে ডিএসসিসির উচ্ছেদ অভিযান শুরু

December 8, 2020 | 4:04 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: তীব্র বাধা উপেক্ষা করে সাড়ে চার ঘণ্টা পর অবশেষে ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেটের অবৈধ দোকান উচ্ছেদ শুরু করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। এসময় ব্যবসায়ীরা বাধা দিলে পুলিশ টিয়ার শেল মেরে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) বেলা আড়াইটার দিকে অভিযান শুরু করেন ডিএসসিসির তিন জন ম্যাজিস্ট্রেট।

এর আগে বেলা সাড়ে ১০ টার দিকে চার প্লাটুন পুলিশ, আনসার ও এক প্লাটুন বিজিবির সদস্যরা সিটি করপোরেশনের সঙ্গে ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট-২ এর সামনে অবস্থান নেয়৷ এসময় বিপুল সংখ্যক ব্যবসায়ী বিক্ষোভ শুরু করে এবং উচ্ছেদে বাধা দেয়।

বিজ্ঞাপন

ব্যবসায়ীদের তুলনায় পুলিশের সংখ্যা কম থাকায় উচ্ছেদ অভিযান শুরু করতে না পারলেও বেলা আড়াইটার দিকে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করার পর উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়। উচ্ছেদ শুরু করলে আবারও ব্যবসায়ীরা বাধা দেয়। এসময় পুলিশ টিয়ার শেল মেরে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

সিটি করপোরেশন বলছে, হানিফ ফ্লাইওভারের নিচে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নগর ভবনের পেছনে ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট-২ এ প্রায় ৯০০ অবৈধ দোকান রয়েছে। ফুটপাত, টয়লেট ও লিফটের জায়গা দখল করে এসব দোকান করা হয়েছে। এসব অবৈধ দোকান উচ্ছেদ করতে একটি কমিটি করা হয়েছিল। সেই কমিটির রিপোর্টের ভিত্তিতে অবৈধ দোকান উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেয় ডিএসসিসির মেয়র ফজলে নুর তাপস।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে, ব্যবসায়ীদের দাবি, সাইদ খোকন মেয়র থাকা অবস্থায় নেতাদের মাধ্যমে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে এসব দোকান বরাদ্দ দিয়েছেন। কেউ ১০ লাখ আবার কেউ ১২ লাখ এমনকি ১৫ লাখ টাকায় দোকান কিনেছেন। বেশ কয়েক বছর তারা খাজনাও পরিশোধ করেছেন। এখন এই দুঃসময়ে এসে দোকান উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিএসসিসি। তবে আরও সময় দিয়ে এই উচ্ছেদ করলে উপকার হতো।

মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) বেলা সোয়া ৩টা পর্যন্ত এ রিপোর্ট লেখা অবৈধভাবে গড়ে তোলা বাউন্ডারি দেয়াল ভাঙ্গা হচ্ছিল।

বিজ্ঞাপন

এদিকে মেয়র ফজলে নুর তাপস নগর ভবনে বলেছেন, আগামী মার্চের মধ্যে ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেটের অবৈধ দোকান উচ্ছেদের কাজ শেষ করা হবে।

সারাবাংলা/ইউজে/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন