বিজ্ঞাপন

‘বাংলাদেশ দেখিয়ে দিয়েছে, আমরা পারি’

December 10, 2020 | 1:16 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

পদ্মাসেতু প্রকল্প এলাকা থেকে: অন্যের মুখাপেক্ষী না থেকে বাংলাদেশ যে নিজেই কিছু করে দেখাতে পারে, পদ্মাসেতুকে তারই প্রমাণ হিসেবে অভিহিত করেছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, পদ্মাসেতুর সর্বশেষ স্প্যান বসানোর মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ বিশ্বকে দেখিয়েছে, আমরা পারি। বাংলাদেশের পক্ষে এখন সব অসাধ্য সাধন সম্ভব।

বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরে পদ্মাসেতুর ৪১তম, তথা শেষ স্প্যানটি বসানোর কার্যক্রম পরিদর্শনে এসে তিনি এ কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

দুপুরে প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) ডকে করে পদ্মাসেতুর সর্বশেষ স্প্যান বসানোর কার্যক্রম পরিদর্শন করছিলেন। পদ্মা নদীর বুকে দাঁড়িয়েই সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

শেষ স্প্যানটি বসানোর মাধ্যমে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য নিয়ে পুরো পদ্মাসেতু দৃশ্যমান— এমন মুহূর্তের সাক্ষী হওয়া প্রতিমন্ত্রীর কাছে অনুভূতি জানতে চান সাংবাদিকরা। প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এই অনুভূতি কেউ ভাষায় প্রকাশ করতে পারবে না। শুধু একটি কথায় বলা যায়— আমরা সমগ্র দেশবাসী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ। তিনি আমাদের এই উচ্চতায় নিয়ে গেলেন সমগ্র বিশ্ববাসীর কাছে। চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে কিভাবে একটি জিনিস বাস্তবায়ন করা যায়, সেটি আমাদের শিখিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। তার নেতৃত্বে দেশ পেয়েছি, পেয়েছি স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব। তার কন্যার হাত ধরে আজ পদ্মাসেতু পেলাম।’

বিজ্ঞাপন

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে আমাদের যে মর্যাদা সমগ্র বিশ্ববাসীর কাছে,  আমরা যে অবস্থানে আজ পৌঁছে গেলাম, এ কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চিরকৃতজ্ঞ। এটা তো সবার স্বপ্ন, স্বপ্নের পাশাপাশি একটা মর্যাদার বিষয়ও ছিল। অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে, সব ষড়যন্ত্রের জবাব সব শেষ এই স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ দেখিয়ে দিলো, অমরা পারি।’

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ এখন যেকোনো অসাধ্য সাধনের সক্ষমতা রাখে। দেশরত্ন শেখ হাসিনা আলোকবর্তিকা। তিনি সমগ্র বাংলাদেশকে আলো দিচ্ছেন। তার আলোয় বাংলাদেশ আজকে আলোকিত হয়ে গেছে। পদ্মাসেতু হচ্ছে, রূপপুর পারমাণবিক কেন্দ্র হচ্ছে, মাতারবাড়ি সমুদ্রবন্দর হচ্ছে। কী হচ্ছে না! মহাসড়ক ছিল না, আজ চার লেন, ছয় লেন মহাসড়ক হচ্ছে। এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে হচ্ছে, ফ্লাইওভার হচ্ছে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের মধ্যেও বাংলাদেশ যথেষ্ট সাহসী। করোনা মোকাবিলায় আমরা সফলও হয়েছি।’

বিজ্ঞাপন

প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে এসময় ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য উপস্থিত ছিলেন।

সারাবাংলা/ইএইচটি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন