বিজ্ঞাপন

নিয়াজ মোর্শেদ এলিট জেসিআই বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত

December 12, 2020 | 3:41 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই) বাংলাদেশের নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন তরুণ ব্যবসায়ী ও রাজনীতিক নিয়াজ মোর্শেদ এলিট। প্রেসিডেন্ট পদে তার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিলেন আরমান আহমেদ খান।

বিজ্ঞাপন

শনিবার (১২ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানী হোটেল রেডিসনে আন্তর্জাতিক এই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের বাংলাদেশ শাখার সাধারণ সভা শেষে ভোট গ্রহণ করা হয়। জেসিআই বাংলাদেশের সদ্য সাবেক সভাপতি ইরফান ইসলাম নির্বাচনের কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় নবনির্বাচিত সভাপতি নিয়াজ মোর্শেদ এলিট বলেন, ‘জেসিআই বাংলাদেশের সম্মানিত ভোটারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। তাদের সুচিন্তিত রায়কে আমি আমানত হিসেবে নিয়েই সামনের পথ চলব। রসধমব এ সংগঠনের কল্যাণে এবং জাতীয় পর্যায়ে তরুণ উদ্যোক্তাদের সুযোগ সৃষ্টির জন্য ভূমিকা রাখার চেষ্টা করব।’

বিজ্ঞাপন

জেসিআই ১৮-৪০ বছর বয়সী তরুণ নাগরিকদের একটি আন্তর্জাতিক সংগঠন। যে সংগঠন সক্রিয় থেকে সমাজকে মানসম্মত করতে ও বদলে দিতে বিশেষ ভূমিকা রাখে। জেসিআই কাজ করে দক্ষতা, জ্ঞান ও বুদ্ধির বিকাশের মাধ্যমে ব্যক্তিগত উন্নয়ন নিয়ে। যেন সঠিক নাগরিক হিসেবে তরুণ সমাজ তার দায়িত্ব পালন করতে পারে।

জুনিয়র চেম্বার চট্টগ্রাম চ্যাপ্টারের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নিয়াজ মোর্শেদ এলটি গত ১৪ নভেম্বর ঘোষিত কেন্দ্রীয় যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে সিসি মেম্বার হিসেবে মনোনীত হয়েছিলেন। তিনি চট্টগ্রামভিত্তিক অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘সিভয়েসটুয়েন্টিফোরডটকম’র সম্পাদক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন।

বিজ্ঞাপন

নিয়াজ মোর্শেদ এলিট স্কুল জীবন থেকেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে যুক্ত হন আওয়ামী লীগের আরেক সহযোগী সংগঠন ছাত্রলীগের রাজনীতিতে। তখন থেকে আজ পর্যন্ত তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের হয়ে কাজ করছেন। তিনি ২০০০ সালে চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, ২০০২ সালে ইস্পাহানি পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। ২০০৬ সালে রাজধানীর নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিবিএ ডিগ্রি অর্জন করেন। পরে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ততার পাশাপাশি তিনি নিজ ব্যবসায় মনযোগ দেন। ব্যক্তিগত জীবনে এলিট দুই সন্তানের জনক। তার স্ত্রীও একজন নারী উদ্যোক্তা।

তরুণ এ রাজনীতিক রাজনীতির পাশাপাশি বিভিন্ন ব্যবসায়িক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন। তিনি চট্টগ্রাম খুলশী ক্লাব লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা শাখার সভাপতি, জুনিয়র চেম্বার চট্টগ্রামের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশান চট্টগ্রামের চিফ কো-অর্ডিনেটর, ব্রাদার্স ইউনিয়ন (ঢাকা ও চট্টগ্রাম) ক্রিকেট কমিটির সভাপতি, একুশে মেলা পরিষদের মহাসচিব, কালের কণ্ঠ শুভ সংঘের চিফ এডভাইজার, চট্টগ্রাম বোট ক্লাবের সদস্য ও শাহীন গলফ অ্যান্ড কান্ট্রি ক্লাবের আজীবন সদস্য। সাম্প্রতিক সময়ে মানুষকে লাল ভালোবাসা প্রদানের কাজে নিজেকে সম্পৃক্ত করেছেন। তৈরি করেছেন ‌‘নিয়াজ মোর্শেদ এলিট ব্লাড ডোনার্স ক্লাব’। স্বেচ্ছাসেবীমূলক এ সংগঠনের মাধ্যমে দিনে দুই-তিনজনকে রক্তদান করা হয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএ/এজেড/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন