বিজ্ঞাপন

কথাসাহিত্যিক আখতারুজ্জামান ইলিয়াসের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

January 4, 2021 | 1:57 pm

ঢাকা: বাংলা সাহিত্যের অন্যতম কথাসাহিত্যিক আখতারুজ্জামান ইলিয়াস। খুব বেশি গল্প-উপন্যাস না লিখলেও গুণগত বিচারে তার লেখনি বাংলা সাহিত্যের চিরকালীন রত্ন। উপন্যাস, গল্প রচনায় হয়েছেন অনন্যসাধারণ, পেয়েছেন ভূয়সী প্রশংসা।

বিজ্ঞাপন

সমাজবাস্তবতার অনন্যসাধারণ এই রূপকার তার লেখায় বাস্তবতাকে নিপুণভাবে তুলে ধরেছেন। স্বল্পপ্রজ এই লেখকের জন্ম ১৯৪৩ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি গাইবান্ধার গেটিয়া গ্রামে। তার ডাক নাম মঞ্জু। পৈত্রিক বাড়ি বগুড়া জেলায়। বগুড়া জেলা স্কুল থেকে ম্যাট্রিকুলেশন ও ঢাকা কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট পাস করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলায় ভর্তি হন তিনি।

শিক্ষাজীবন শেষ করে জগন্নাথ কলেজে প্রভাষক পদে যোগ দেন আখতারুজ্জামান ইলিয়াস। তিনি মিউজিক কলেজের উপাধ্যক্ষ, প্রাইমারি শিক্ষা বোর্ডের উপ-পরিচালক, ঢাকা কলেজের বাংলার অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। মফিজউদ্দিন শিক্ষা কমিশনেরও সদস্য ছিলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

চিলেকোঠার সেপাই ও খোয়াবনামা, মাত্র এই দুটি উপন্যাস লিখেই তিনি তার সময়ের কথাসাহিত্যিকদের ছাড়িয়ে গেছেন। মুক্তিযুদ্ধ ও যুদ্ধপরবর্তী রাজনৈতিক ও সামাজিক বাস্তবতা উঠে এসেছে তার বেশ কয়েকটি লেখায়। তার মধ্যে অন্যতম হলো প্রতিশোধ, অন্য ঘরে অন্য স্বর, খোঁয়ারি, মিলির হাতে স্টেনগান, অপঘাত, জাল স্বপ্ন স্বপ্নের জাল, রেইনকোট।

দুই বাংলার অনেক সাহিত্যিকের কাছে তার সাহিত্য পেয়েছে শ্রেষ্ঠ লেখনির মর্যাদা। ১৯৮৩ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার এবং ১৯৯৯ সালে একুশে পদকে ভূষিত হন আখতারুজ্জামান ইলিয়াস। ১৯৯৬ সালে পান আনন্দ পুরস্কার।

বিজ্ঞাপন

ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ১৯৯৭ সালের ৪ জানুয়ারি মৃত্যুবরণ করেন আখতারুজ্জামান ইলিয়াস।

সারাবাংলা/এসএসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন