বিজ্ঞাপন

অবৈধ হ্যান্ডসেট বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে জুলাইয়ে

January 7, 2021 | 6:33 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: আগামী ১ জুলাই থেকে দেশে অবৈধ ও নকল হ্যান্ডসেট বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা (বিটিআরসি)। ১ জুলাই ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেনটিটি রেজিস্ট্রার (এনইআইআর) সিস্টেম চালুর মাধ্যমে এই প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) বিটিআরসি কার্যালয়ে টেলিকম খাতের সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিয়ম অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, এখন যেসব সেট যার যার হাতে আছে, তাদের সুযোগ দেওয়া হবে। নতুন যেসব সেট আসবে, সেগুলো নিবন্ধন করতে হবে। পহেলা জুলাইয়ের পর থেকে অবৈধ হ্যান্ডসেট বন্ধের কাজ শুরু হবে। ওই দিন থেকে এনআইআর চালু হবে। তখন ব্যবহারকারীর হাতে থাকা সব সেট নিবন্ধন হয়ে যাবে।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, অবৈধ মোবাইল সেট বন্ধ ও বৈধ সেটের নিবন্ধনে উদ্যোগ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কথা বলে আসছে বিটিআরসি। আরও অনেক আগেই এনইআইআর সিস্টেম চালুর কথা বলা হয়েছে। শেষ পর্যন্ত এই জুলাইয়ে এই রেজিস্ট্রার চালুর কথা জানালেন বিটিআরসি চেয়ারম্যান।

এক প্রশ্নের উত্তরে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, ‘মোবাইল কোম্পানির সেবার মান খুবই খারাপ। কল ড্রপ, কথা না শোনাসহ অনেক অভিযোগ আমাদের কাছে আসে। এ সংখ্যা সাড়ে পাঁচ লাখের বেশি।’ সেবার মান উন্নয়নে ভবিষ্যতে কাজ করবেন বলেও জানান তিনি।

বিজ্ঞাপন

আইন সংশোধনের মাধ্যমে বিটিআরসির স্বাধীনতা কেড়ে নেওয়া হচ্ছে কি না— এমন প্রশ্নের জবাবে সংস্থাটির বর্তমান প্রধান বলেন, ‘বিটিআরসির সক্ষমতা কেড়ে নেওয়া হচ্ছে না। এটি নিয়ে শঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। ডিপার্টমেন্ট অব টেলিকম বা ডট তরঙ্গসহ কিছু বিষয় সমন্বয় করবে।’

২০২৩ সালের মধ্যে ফাইভ জি চালুর লক্ষ্যে গাইডলাইন তৈরি হচ্ছে বলেও এসময় জানান বিটিআরসি চেয়ারম্যান। নতুন চেয়ারম্যান হিসাবে লাইসেন্স পাওয়া প্রতিটি অংশীদারের সমস্যাগুলোর সমাধান, গ্রাহক সেবার মান বাড়ানো ও বিটিআরসির সক্ষমতা বাড়ানোকে চ্যালেঞ্জ হিসাবে দেখছেন শ্যাম সুন্দর সিকদার।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/ইএইচটি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন