বিজ্ঞাপন

‘স্বভাবগত অপরাধী’ সোনু সুদ, অভিযোগ বিএমসির

January 13, 2021 | 3:29 pm

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

করোনা কালে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে অকাতরে সাহায্য করে যাওয়া মানুষটির নাম- সোনু সুদ। কেউ বলেন তিনি ‘মসিহা’, আবার কারো কাছে তিনি ‘রবিনহুড’। আর সেই ‘মসিহা’কে স্বভাব অপরাধী হিসেবে ব্যাখ্যা দেওয়া হলো।

বিজ্ঞাপন

সোনু সুদের বিরুদ্ধে কিছুদিন আগে থানায় অভিযোগ জমা দেয় বৃহন্মুম্বাই পৌরসভা তথা বিএমসি। তাদের দাবি, জুহুতে নিজের ৬ তলার শক্তি সাগর আবাসনকে অনুমতি ছাড়াই হোটেলে পরিণত করে ফেলেছেন সোনু। বিএমসি’র সেই নোটিসকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে মুম্বাই হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন অভিনেতা। তার আবেদনে সাড়া দিয়ে ১৩ জানুয়ারি অর্থাৎ আজ শুনানির দিন ধার্য করা হয়। সেই সূত্রেই বিএমসি’র পক্ষ থেকে মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) আদালতে হলফনামা জমা দেওয়া হয়।

ভারতীয় গণমাধ্যম সুত্রের খবর, বিএমসি’র পেশ করা হলফনামায় লেখা হয়েছে মুম্বাই হাই কোর্টে আবেদনকারী অর্থাৎ সোনু সুদ স্বভাবগতভাবেই অপরাধী। অবৈধ নির্মাণ করিয়ে তিনি বাণিজ্যিক লাভ পেতে চান। দুই বছর আগে অর্থাৎ ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে সোনুর বিরুদ্ধে প্রথম অবৈধ নির্মাণের অভিযোগ আনা হয়েছিল। তাকে সতর্ক করা হয়েছিল। তারপরও নাকি অভিনেতা অবৈধ নির্মাণের কাজ চালিয়ে গিয়েছিলেন। সে বছরই নভেম্বর মাসে অবৈধ নির্মাণের অংশটি ভেঙে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু আবারও অভিনেতা অনুমতি ছাড়া ভাঙা অংশের নির্মাণকাজ শুরু করেছেন। আর তাকে লাইসেন্স ছাড়াই হোটেলের পরিণত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

এদিকে বুধবারই অবৈধ নির্মাণ মামলার শুনানির আগে প্রবীণ রাজনৈতিক নেতা শরদ পাওয়ারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন সোনু সুদ। ভারতীয় সংবাদসংস্থা এএনআইয়ের পক্ষ থেকে প্রকাশ করা হয়েছে ছবি। ছবির ক্যাপশনে এটিকে সৌজন্য সাক্ষাৎ বলে উল্লেখ করা হলেও নেটদুনিয়ার অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন, আবাসন মামলায় বাঁচাতেই কি পাওয়ারের দ্বারস্থ হয়েছেন সোনু?

সারাবাংলা/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন