বিজ্ঞাপন

অবশেষে সাকিবের ব্যাটে রান, হাসল তামিম-শান্তর ব্যাটও

January 16, 2021 | 5:47 pm

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা সাকিব আল হাসানের পারফরম্যান্স আশানুরূপ হচ্ছিল না। মুক্ত সাকিব বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে ৯ ম্যাচ খেলেছেন। তারপর প্রস্তুতি ম্যাচ খেললেন একটা। দশ ম্যাচের কোনটিতেই রান পাননি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। বল হাতেও সেই তেজ দেখা যায়নি। রান কম খরচ করলেও সেভাবে উইকেট পাননি সাকিব। অবশেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের ঠিক আগ মুহূর্তে এসে ব্যাট হাসল তারকা ক্রিকেটারের।

বিজ্ঞাপন

আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজকে সামনে রেখে নিজেদের মধ্যে ভাগ হয়ে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছেন স্কোয়াডে ডাক পাওয়া ক্রিকেটাররা। গতকাল এক ম্যাচ খেলা ক্রিকেটাররা আজ নেমেছিলেন দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে। ম্যাচে সাকিবের সঙ্গে রান পেয়েছেন তামিম ইকবাল ও তরুণ নাজমুল হোসেন শান্তও।

বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এক দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন মেহেদি হাসান মিরাজ, অন্য দলকে তামিম ইকবাল। প্রথমে ব্যাটিং করতে নামা মিরাজের দলের শুরুটা হয়েছে দারুণ। প্রথম উইকেটে ৯৫ রান তোলেন দু্ই তরুণ ওপেনার নাইম শেখও ইয়াছির আলি রাব্বি। রাব্বি ৩৫ বলে ২৮ করে ফিরলে সাকিব তিনে নেমে বার্তা দেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে নাম্বার তিন হতে যাচ্ছেন তিনিই। গত ওয়ানডে বিশ্বকাপে তিন নম্বরে ব্যাটিং করে অবিশ্বাস্য সাফল্য পেয়েছিলেন তিনি। বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টিতে অবশ্য তার ব্যাটিং অর্ডার উপর-নিচ হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তিনে নেমে আজ শুরুতে রয়েসয়ে খেলেছেন সাকিব। প্রথমে মনে হচ্ছিল রানের চিন্তা বাদ দিয়ে উইকেটে সময় কাটানোর লক্ষ্যই ঠিক করে নেমেছেন! নাসুম আহমেদের বলে সৌম্য সরকারের হাতে ধরা পরার আগে ৫২ রান করতে সাকিব খেলেছেন ৮২টি বল। সাকিব চার-ছক্কা মেরেছেন মাত্র একটি করে। এরপর মুশফিকুর রহিম (২৫) ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত (৩১) সেট হয়েও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। যাতে নির্ধারিত ৪৫ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২২৩ রান তোলে মিরাজের দল।

জবাব দিতে নেমে তামিম একাদশের শুরুটাও হয় দারুণ। প্রথম ম্যাচে রান না পাওয়া লিটন দাস আজ ৫৩ বলে ৭ চারে ৪৮ রান করেছেন। তার সঙ্গে তামিম ইকবালের ওপেনিং জুটি ছিল ৭৭ রানের। তারপর নাজমুল হাসান শান্তকে নিয়ে দলকে জয়ের কাছাকাছি নিয়ে গেছেন তামিম। ওয়ানডে অধিনায়ক স্বেচ্ছাই ক্রিজ ছেড়েছেন ৮০ বলে ৮০ রান করে। তার ইনিংসে চার ৫টি, ছক্কা ৩টি। তরুণ শান্ত ৫১ বলে ৭ চার ২ ছয়ে ৬১ রান করার পর যখন ফিরলেন তামিম একাদশ তখন জয় থেকে ২৭ রান দুরে। বাকি কাজটা সেরেছেন মোহাম্মদ মিঠুন, সৌম্য সরকার। ৩৫.২ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে জয়ের জন্য ২২৪ রান তুলে ফেলে তামিম একাদশ।

বিজ্ঞাপন

ব্যাটসম্যানদের রান পাওয়ার দিনে আজকের ম্যাচে বোলিং ডিপার্টমেন্ট বেশ অনুজ্জ্বল ছিল। অনেকদিন পর ওয়ানডে স্কোয়াডে ফেরা তাসকিন আহমেদ ও প্রথমবার ডাক পাওয়া হাসান মাহমুদ ছিলেন বেশ খরুচে। উইকেটশূন্য সাকিব আল হাসানও ছিলেন বেশ খরুচে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন