বিজ্ঞাপন

ইবিতে হল বন্ধ রেখে পরীক্ষা, বিপাকে শিক্ষার্থীরা

January 21, 2021 | 11:27 am

ইবি করেসপন্ডেন্ট

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ বন্ধ করে দেওয়া হয় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি)। তবে শিক্ষার্থীদের দাবির প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের হল বন্ধ রেখে জানুয়ারি মাসে পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিজ্ঞাপন

ইতোমধ্যে বিভিন্ন বিভাগের আটকে থাকা চূড়ান্ত পরীক্ষা চলছে। একইসঙ্গে চলছে বিভিন্ন বিভাগের রিটেক ও মানোন্নয়ন পরীক্ষা। তবে আবাসিক হল বন্ধ থাকায় পরীক্ষা দিতে এসে ভোগান্তি পোহাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। থাকা-খাওয়ার সমস্যার পাশাপাশি নিরাপত্তাহীনতা ও স্বাস্থ্যঝুঁকি থাকায় সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে পড়েছেন ছাত্রীরা।

জানা গেছে, ক্যাম্পাসের পাশ্ববর্তী এলাকায় রয়েছে মেসের স্বল্পতা। মেসের তুলনায় শিক্ষার্থীদের সংখ্যা বেশি। মেসের মালিকরা ভাড়া বাড়িয়ে দেওয়ার কারণে বাড়তি ভাড়া বহন করা অনেকেরই সক্ষমতার বাইরে।

বিজ্ঞাপন

ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ক্যাম্পাস খোলা অবস্থায় তাদের অধিকাংশ শিক্ষার্থীই হলে অবস্থান করতো। এদের মধ্যে অনেকেই টিউশনি করে মাসিক খরচ চালাতো। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির কারণে টিউশনি ছাড়া সময় কাটতে হচ্ছে তাদেরকে। এসময় হল বন্ধ থাকায় মেসের অতিরিক্ত ভাড়া ও আনুষাঙ্গিক খরচ চালানো যেন মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হিসেবে দেখা দিয়েছে।

এ বিষয়ে উপাচার্য শেখ আবদুস সালাম বলেন, ‘স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ফাইনাল পরীক্ষা গ্রহণের ব্যাপারে গত ১৩ ডিসেম্বর ইউজিসির সাথে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের যে বৈঠক হয়েছিলো, সেখানে ইউজিসি থেকে স্পষ্ট করে বলা হয়েছিলো পরীক্ষা নিলেও বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হল খুলতে পারবে না। আর এমনিতেও হল খুলে দিলে পরীক্ষার্থী ছাড়াও অনেকেই থাকতে চাইবে। এমন পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদেরকেই ব্যক্তিগত তত্ত্বাবধানে আবাসন সংকট নিরসন করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএসএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন