বিজ্ঞাপন

‘কেউ গৃহহারা থাকবে না, এটাই জাতির পিতার স্বপ্ন’

January 23, 2021 | 5:34 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বাংলাদেশের একটি মানুষও গৃহহারা থাকবে না উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘প্রত্যেকের একটা ঠিকানা হবে; যা জাতির পিতার স্বপ্ন। তার স্বপ্নটা পূরণ করা আমাদের কর্তব্য।’

বিজ্ঞাপন

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন মানুষকে জমি ও গৃহ হস্তান্তর কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে ৬৯ হাজার ৯০৪ জন ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারকে জমি ও ঘর হস্তান্তর করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এত সংখ্যক মানুষকে একসঙ্গে ঘর দেওয়ার ঘটনা বিশ্বে এটিই প্রথম উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর কোনো দেশ কখনো অথবা আমাদের দেশেও কোনদিন কোনো সরকার এত দ্রুত এতগুলি ঘর করে একসঙ্গে দিয়েছে কি না, জানি না।

উদ্বোধন ঘোষণা শেষে প্রধানমন্ত্রী গণভবন প্রান্ত থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এবং ৪৯২টি উপজেলা প্রান্তে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে মুজিববর্ষে দেশের ভূমিহীন ও গৃহহীনদের পাশাপাশি মাঠ প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও নেতাদের সঙ্গেও মতবিনিময় করেন। তিনি চার জেলার চারটি গ্রামে যুক্ত হন। এর মধ্যে খুলনার ডুমুরিয়া, নীলফামারী সৈয়দপুর, হবিগঞ্জের চুনারুঘাট, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার সঙ্গে যুক্ত হয়ে মতবিনিময় করেন। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ভিডিও কনফারেন্সে করা হয় বলে প্রধানমন্ত্রীকে জানান তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।

বিজ্ঞাপন

শেখ হাসিনা জানান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এটা প্রতিনিয়ত তদারকি করা হয়েছে, যাতে ঘরগুলি মানসম্মত হয়, ঠিকমতো কাজগুলি করা হয়। সরকারি কর্মচারীরা যেভাবে সবসময় আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করেছেন এটা অতুলনীয়। সেইসঙ্গে আমাদের নির্বাচিত প্রতিনিধি যারা; সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যান, মেয়র থেকে শুরু করে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সকলে মিলে সহযোগিতা করেছেন বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, ইতোমধ্যে আমরা একটা হিসাব নিয়েছি, সারাদেশে আমাদের যেমন ভূমিহীন লোকও আছে, আবার কিছু হয়তো ভিটা আছে ঘরবাড়ি কিছু নাই। ঠিক এভাবেই হিসাব করে প্রায় ৮ লাখ ৮৫ হাজার মানুষের তালিকা আমরা করেছি।

বিজ্ঞাপন

সমাজের বিত্তশালীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যারা বিত্তশালী আছেন, তাদেরকেও আহ্বান করবো, যার যার নিজ এলাকায় তারাও খুঁজে দেখতে পারেন। যারা গৃহহীন, তাদেরকে একটা গৃহ তৈরি করে দেওয়া বা তাদের জীবনটাকে অর্থবহ করে দেওয়া।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এনআর/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন