বিজ্ঞাপন

রাজধানীতে তুরস্কফেরত নব্য জেএমবির সদস্য গ্রেফতার

January 24, 2021 | 4:34 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: রাজধানীতে মিনহাজ হোসেন (৩৮) নামে নব্য জেএমবির (জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ) এক সদস্যকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের একটি টিম। এই জঙ্গি তুরস্কের সন্ত্রাসী সংগঠন হায়াত তাহরীর আল শামের (এইচটিএস) সঙ্গে জড়িত ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। সিরিয়া যাওয়ার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে তুরস্ক থেকে ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে সে বাংলাদেশে ফিরে এসেছিল।

বিজ্ঞাপন

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে দারুস সালাম থানার কোনাবাড়ি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের সময় তার হেফাজত থেকে মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়।

রোববার (২৪ জানুয়ারি) ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার অতিরিক্ত উপ-কমিশনার ইফতেখারুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

কাউন্টার টেরোরিজম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের বরাত দিয়ে উপ-কমিশনার ইফতেখারুল ইসলাম বলেন, গ্রেফতার মিনহাজ হোসেন নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির একটি অংশ নব্য জেএমবির একজন সক্রিয় সদস্য। এছাড়াও আন্তর্জাতিক উগ্রবাদি সংগঠন হায়াত তাহরীর আল শামের (এইচটিএস) সদস্যদের সঙ্গে তার যোগাযোগ রয়েছে বলেও সে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে। সে ও তার পলাতক সহযোগিরা নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠনের আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে ঢাকা শহরে নাশকতা সৃষ্টির পরিকল্পনার জন্য ঘটনাস্থলে মিলিত হয়েছিল।

কাউন্টার টেরোরিজম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ আরও জানায়, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানা যায়, গত বছরের ডিসেম্বর মাসে সিরিয়া থেকে তুরস্ক হয়ে একজন সিরিয়াফেরত বাংলাদেশি নাগরিক বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে। সে বাংলাদেশে রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে কথিত খিলাফত প্রতিষ্ঠার জন্য বিভিন্ন সহিংস উগ্রবাদি জঙ্গি সংগঠনের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করে নাশকতার পরিকল্পনা করছে। তখন থেকেই তাকে শনাক্ত ও গ্রেফতারের জন্য গোয়েন্দা তৎপরতা জোরদার করা হয়। যার ধারাবাহিকতায় শনিবার দারুস সালাম এলাকা থেকে মিনহাজকে গ্রেফতার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

সূত্রটি জানায়, গ্রেফতার মিনহাজ উগ্রবাদি ভাবাদর্শে দীক্ষিত হয়ে আন্তর্জাতিক উগ্রবাদি সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা শুরু করে। এ উদ্দেশ্যে সে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে সিরিয়া যাওয়ার লক্ষ্যে তুরস্কে যায়। তুরস্কে থাকাকালীন সময়ে সে সন্ত্রাসী সংগঠন হায়াত তাহরীর আল শামের (এইচটিএস) সঙ্গে জড়িত বিভিন্ন ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করে সিরিয়া যাওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু সে সিরিয়ায় প্রবেশ করতে না পেরে তুরস্ক থেকে ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে বাংলাদেশে ফিরে আসে। দেশে ফিরে সে খুলনা গিয়ে আত্মগোপন করে এবং বাংলাদেশে অবস্থানরত সন্ত্রাসী সংগঠন নব্য জেএমবির সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করে। সে নব্য জেএমবি সংগঠনের সদস্যদের সঙ্গে মিলিত হয়ে রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে বাংলাদেশে কথিত খিলাফত প্রতিষ্ঠা করার পরিকল্পনা করে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

জানা যায়, গ্রেফতার মিনহাজ বংশানুক্রমে বাংলাদেশের নাগরিক। সে বাংলাদেশে জম্মগ্রহণ করার পর কিশোর বয়সেই পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে পাকিস্তান চলে যায়। সে সেখানেই বড় হয়। পরবর্তী সময়ে পাকিস্তান থেকে সে ও তার পরিবারের সদস্যরা যুক্তরাষ্ট্রে চলে যায়। এছাড়াও, সে বিভিন্ন সময়ে মালয়েশিয়া, ব্রুনাই, পাপুয়া নিউগিনিসহ একাধিক দেশ ভ্রমণ করে এবং ২০১৭ সালে বাংলাদেশে ফিরে আসে।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় গ্রেফতার মিনহাজের বিরুদ্ধে দারুস সালাম থানায় মামলা রুজু হয়েছে এবং আদালতে পাঠানো হয়েছে।

সারাবাংলা/ইউজে/এসএসএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন