বিজ্ঞাপন

লাদাখ সংঘর্ষে ৪ সেনার মৃত্যু, চীনের স্বীকারোক্তি

February 19, 2021 | 2:54 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০২০ সালের ১৫ জুন পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় ভারতের সঙ্গে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে নিজেদের চার সেনাসদস্যের প্রাণহানির কথা স্বীকার করেছে চীন। ঘটনার আট মাস পর চীন প্রথমবারের মতো আনুষ্ঠানিকভাবে এ স্বীকারোক্তি জানালো। খবর বিবিসি।

বিজ্ঞাপন

চীনা সেনাবাহিনীর মুখপত্র পিএলএ ডেইলি শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) জানিয়েছে, ওই চার সেনাসদস্যকে রাষ্ট্রীয় সম্মানে সমাহিত করা হয়েছে। এ ব্যাপারে চীনের রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত গণমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস বলছে, মৃত সেনাদের মধ্যে কর্মকর্তা এবং সৈনিক পদমর্যাদার সদস্য ছিলেন।

ভারতের সেনারা চুক্তি ভেঙে সীমান্ত অতিক্রম করে চীনের অভ্যন্তরে ঢুকে পড়ার পর তাদের বিরুদ্ধে প্রচণ্ড সংগ্রামের এক পর্যায়ে চীনের চার সেনাসদস্য প্রাণ হারান — জানিয়েছে গ্লোবাল টাইমস।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, ওই সংঘর্ষের পর ভারতের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়, ঘটনায় তাদের ২০ সেনার মৃত্যু হয়েছে। সংঘর্ষে চীনের পক্ষেও হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর বেইজিং হতাহতের কথা স্বীকার না করলেও তারা এত দিন পর সুনির্দিষ্ট সংখ্যা উল্লেখ করল।

সম্প্রতি ভারতীয় সেনাবাহিনীর উত্তরাঞ্চলীয় কমান্ডের প্রধান দাবি করেন, ওই সংঘর্ষে চীনের ৪৫ সেনাসদস্য হতাহত হয়েছিলেন। তার উদ্ধৃতি দিয়ে ১০ ফেব্রুয়ারি এ বিষয়ে খবর প্রকাশ করে রাশিয়ার বার্তা সংস্থা তাস। এরপরই চীন ওই সংঘর্ষের ঘটনায় তাদের পক্ষে হতাহতের সংখ্যা স্বীকার করল।

বিজ্ঞাপন

ওই সংঘর্ষের ঘটনায় চীন ও ভারত পরস্পরকে দোষারোপ করে আসছে। এ নিয়ে সীমান্তে দুই দেশের মধ্যে লম্বা সময় ধরে উত্তেজনা বিরাজমান ছিল। পরে উভয় দেশ সীমান্তে উত্তেজনা কমাতে উদ্যোগী হয়। কয়েক মাস ধরে দফায় দফায় আলোচনার পর এক সমঝোতার ভিত্তিতে চলতি মাসে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা (এলওসি) থেকে সেনা সরাতে শুরু করে চীন ও ভারত।

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন