বিজ্ঞাপন

বিয়ে-তালাকের ডিজিটাল নিবন্ধন চেয়ে তামিমার প্রথম স্বামীর নোটিশ

February 23, 2021 | 12:28 am

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বিয়ে ও তালাকের ডিজিটাল নিবন্ধন করার নির্দেশনা চেয়ে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন ক্রিকেটার নাসিরের স্ত্রী তামিমা সুলতানা তাম্মির আগের স্বামী মো. রাকিব হাসান। তিনিসহ আরও দুই ভুক্তভোগী ও একটি সংগঠনের পক্ষ থেকে নোটিশটি পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) পাঠানো এই নোটিশের বাকি দুই ভুক্তভোগী হলেন— মাগুরার জেলার মো. সোহাগ হোসেন ও নোয়াখালী জেলার মো. কামরুল হাসান। এছাড়া এইড ফর ম্যান ফাউন্ডেশনের পক্ষে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম নোটিশে সই করেছেন। নোটিশদাতাদের পক্ষে ছিলেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইশরাত হাসান।

আইনি নোটিশ পাঠানোর বিষয়টি সারাবাংলাকে নিশ্চিত করে আইনজীবী ইশরাত হাসান বলেন, ‘বিয়ে-তালাক ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশনের জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতরের প্রতি লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে। নোটিশ পাওয়ার তিন দিনের মধ্যে এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষ পদক্ষেপ গ্রহণ না করলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিজ্ঞাপন

আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব এবং ধর্ম মন্ত্রণায়ের সচিব বরাবর এ নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

নোটিশে বলা হয়, বিয়ে ও তালাক রেজিস্ট্রেশনের আইনি বিধান থাকলেও তা ডিজিটাল না করার ফলে অসংখ্য প্রতারণার ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া বিয়ে গোপন রেখে তালাক না দিয়ে বিয়ে করার ঘটনাও ঘটছে। বিয়ে ও তালাকের রেজিস্ট্রেশন আইনি নথি হিসেবে ব্যবহৃত হয়, যা ব্যক্তির অধিকারকে ‍সুরক্ষিত করে। তাই রাষ্ট্রের কাছ থেকে আইনি সহায়তা পাওয়ার ক্ষেত্রে বিয়ের রেজিস্ট্রেশন ডিজিটাল হওয়া আবশ্যক। বিয়ে ও তালাক ডিজিটালাইজেশন করলে তার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর দিয়ে সার্চ করলেই সব তথ্য বেরিয়ে আসবে। এতে প্রতারণার হাত থেকে অসংখ্য মানুষ রক্ষা পাবে।

বিজ্ঞাপন

নোটিশ পাওয়ার তিন দিনের মধ্যে বিয়ে ও তালাক রেজিস্ট্রেশন ডিজিটাল করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করা হয়েছে। তা না করলে এ বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হবে বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে।

সম্প্রতি বিয়ের পিঁড়িতে বসা ক্রিকেটার নাসিরের স্ত্রী তামিমা সুলতানা তার আগের স্বামীকে তালাক না দিয়েই আবার বিয়ে করেছেন বলে অভিযোগ ওঠে। এ বিষয়ে নিজেকে তামিমার স্বামী দাবি করে উত্তরা পশ্চিম থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন রাকিব হাসান।

বিজ্ঞাপন

জিডিতে রাকিব লিখেছেন, তামিমার সঙ্গে তার দীর্ঘ ১১ বছরে সম্পর্ক। তাদের দু’জনের সংসারে আট বছরের একটি মেয়ে রয়েছে। কিন্তু সন্তান-সংসার রেখে নাসিরকে বিয়ে করায় থানায় অভিযোগ করেছেন তিনি।

এর মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি মোবাইল কথোপকথনের অডিও ক্লিপ ভাইরাল হয়। তাতে যে দু’জন কথা বলছিলেন, তারা নিজেদের ক্রিকেটার নাসির ও রাকিব হাসান বলে পরিচয় দেন। ফোনালাপে রাকিবকে বলতে শোনা যায়, নাসির কেন জেনেশুনে অন্যের বউকে বিয়ে করেছেন। তবে নাসির তাকে উত্তরে বলেন, তিনি সবকিছু জেনেশুনেই তামিমাকে বিয়ে করেছেন। রাকিব যদি চান যে তামিমা সুখে থাকুক, তাহলে তিনি যেন কোনো জটিলতা তৈরি না করেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/কেআইএফ/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন