বিজ্ঞাপন

‘বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ছিল একটি পরিকল্পিত জনযুদ্ধের নির্দেশনা’

March 7, 2021 | 5:28 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ভাষণ শুনেই আমরা রণাঙ্গনে গিয়েছিলাম, অস্ত্র হাতে হানাদার বাহিনীর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েছিলাম। ওই ভাষণের প্রতিটি শব্দ ও বাক্য ছিল একটি পরিকল্পিত জনযুদ্ধের নির্দেশনা। আমাদের জন্য ছিল যুদ্ধজয়ের মন্ত্র।

বিজ্ঞাপন

রোববার (৭ মার্চ) সকালে নগরীর থিয়েটার ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালন উপলক্ষে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন আয়োজিত আলোচনা সভায় মেয়র এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ছিল স্বাধীনতা যুদ্ধের একটি কৌশলগত নির্দেশনা। অনেকে বলেন বঙ্গবন্ধু সরাসরি স্বাধীনতা ঘোষণা করেননি কেন ? এর উত্তর হল, বঙ্গবন্ধু একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। তিনি যদি ৭ মার্চ সরাসরি স্বাধীনতার ঘোষণা করতেন তাহলে পাকিস্তানিরা তাকে বিচ্ছিন্নতাবাদী হিসেবে চিহ্নিত করত। ৭ মার্চ রেসকোর্সে পাকিস্তানি বাহিনী বোমা হামলা চালিয়ে ও ঢাকা নগরীকে ধ্বংসস্তূপে পরিণত করে লক্ষ লক্ষ বাঙালিকে হত্যা করত।

বিজ্ঞাপন

তিনি ‘জয় বাংলাকে’ জাতীয় স্লোগান আখ্যায়িত করে বলেন, ‘জয় বাংলা আওয়ামী লীগের স্লোগান নয়, ছাত্রলীগের নিউক্লিয়াসপন্থীদের স্লোগান। পরে এই স্লোগানটি বঙ্গবন্ধু দিয়েছেন। এই স্লোগানের জনক বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম। এ কারণে মহান মুক্তিযুদ্ধে জয় বাংলা স্লোগান ছিল প্রতিটি মুক্তিযোদ্ধার প্রাণস্পন্দন।

চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মুহাম্মদ মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী, হাসান মুরাদ বিপ্লব, পুলক খাস্তগীর, ভারপ্রাপ্ত সচিব ও প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম মানিক।

বিজ্ঞাপন

সভার আগে সকালে চসিকের প্রধান কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

সারাবাংলা/আরডি/এসএসএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন