বিজ্ঞাপন

প্রয়োজনে হুইলচেয়ারে ভোটের মাঠে থাকবেন মমতা

March 12, 2021 | 11:13 am

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

পশ্চিমবঙ্গে অনুষ্ঠেয় বিধানসভা নির্বাচনের দুই সপ্তাহ আগে নিজ নির্বাচনি এলাকা নন্দীগ্রামে প্রচারণায় গিয়ে পায়ে আঘাত পাওয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেছেন, প্রয়োজনে তিনি হুইলচেয়ার নিয়েই ভোটের মাঠে থাকবেন।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নিজ দলের সমর্থকদের উদ্দেশে দেওয়া এক ভিডিওবার্তায় তৃণমূল প্রধান এই প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

এর আগে, বুধবার (১০ মার্চ) পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দীগ্রামের রেয়াপাড়ায় মন্দিরে পূজা দিয়ে বের হওয়ার সময় ‘চার-পাঁচ জনের ধাক্কায়’ পড়ে গিয়ে মাথায়, কপালে ও পায়ে চোট পান মমতা ব্যানার্জি।

বিজ্ঞাপন

এ ব্যাপারে কলকাতা থেকে প্রকাশিত আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছিল, ষড়যন্ত্র করে ধাক্কা দিয়ে মমতাকে ফেলে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

এদিকে, তাৎক্ষণিকভাবে মুখ্যমন্ত্রীকে কলকাতায় এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রাতেই তার পায়ে প্লাস্টার করে দেন বিশেষজ্ঞরা।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার দুপুরে হাসপাতালের তরফ থেকে জানানো হয়, তার গোড়ালিতে ব্যথা রয়েছে। হাড়ে চোট লেগেছে, পাশাপাশি শরীরে সোডিয়ামের মাত্রাও কম লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

তার খানিকক্ষণ পরেই হাসপাতালের বিছানায় শোয়া অবস্থায় প্রকাশিত এক ভিডিও বার্তায় মমতা বলেন, দুই এক দিনের মধ্যেই তিনি ফের প্রচারণা শুরু করবেন।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে হাসপাতাল সূত্রের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, মমতার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ড তাকে অন্তত ৪৮-৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে, মমতা প্রচারণায় অংশ নিতে চাইলে চিকিৎসকরা কী সিদ্ধান্ত নেবেন? তা এখনও জানা যায়নি।

প্রসঙ্গত, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রামে তৃণমূলের প্রার্থী মমতা ব্যানার্জি। তার সঙ্গে এই আসনে লড়ছেন সদ্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারি এবং বামফ্রন্টের মীনাক্ষী ব্যানার্জি। ওই আসনে ত্রিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা দেখছেন পর্যবেক্ষকরা। নন্দীগ্রামের পাশাপাশি মমতা টালিগঞ্জের আসন থেকেও লড়তে পারেন বলে জোর গুঞ্জন রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/একেএম/

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন