বিজ্ঞাপন

হাঁটার গতি কম হলে করোনায় মৃত্যুঝুঁকি বেশি: গবেষণা

March 18, 2021 | 12:32 am

লাইফস্টাইল ডেস্ক

যারা ধীরে হাঁটেন তারা করোনাভাইরাস সংক্রমিত হলে অধিক মৃত্যুঝুঁকিতে থাকেন। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের এক গবেষণায় এমনটা দাবি করা হয়েছে। ওই গবেষণায় দেখা গেছে, স্বাভাবিকের চেয়ে ধীরে যারা হাঁটেন তাদের মৃত্যুঝুঁকি অন্তত চার গুণ বেশি। বিবিসি এক প্রতিবেদনে গবেষণার তথ্য তুলে ধরেছে।

বিজ্ঞাপন

যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর হেলথ রিসার্চ (এনএইচআর)- এর লিচেস্টারভিত্তিক বায়োমেডিকেল রিসার্চ সেন্টারের করা গবেষণায় এ দাবি করা হয়। গবেষণায় অন্তত ৪ লাখ মধ্যবয়েসির দ্বৈনন্দিন হাঁটাচলার তথ্য সংগ্রহ করা হয়। গবেষণাটি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুঝুঁকির সঙ্গে ওজনাধিক্য ও স্থূলতা নিরূপণের পদ্ধতি–বডি মাস ইনডেক্স (বিএমআই)-এর যোগসূত্র অনুসন্ধানের জন্য করা হয়েছিল।

প্রধান গবেষক অধ্যাপক টম ইয়েটস এ সম্পর্ক বলেন, কেউ বেশি ঝুঁকিতে কি-না তা পূর্বাভাস দেওয়ার জন্য হাঁটার গতির তথ্য ব্যবহার করা যেতে পারে। আমরা ইতিমধ্যে জানি যে, স্থূলতা ও দুর্বলতা থাকলে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুঝুঁকি বেশি। এই গবেষণাটি প্রথম—যেখানে দেখা গেছে, যারা ধীরে হাঁটেন তাদের ওজন যতই কম বা বেশি হোক না কেন, তারা দ্রুতগামীদের তুলনায় বেশি মৃত্যুঝুঁকিতে।

বিজ্ঞাপন

সমীক্ষায় প্রতি ঘণ্টায় যারা ৪ মাইলের (৪ .৮ কিলোমিটার) কম গতিতে হাঁটেন তারা আস্তে হাঁটেন বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। স্বাভাবিক হাঁটার গতি ধরা হয়েছে ঘণ্টায় তিন থেকে চার মাইল (৬.৮ কিলোমিটার)। আর ঘণ্টায় চার মাইলের বেশি গতিতে যারা হাঁটেন তাদের দ্রুতগামী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

গবেষণায় দেখা যায়, ধীরে হাঁটেন যারা তারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে চারগুণ বেশি মৃত্যুঝুঁকিতে থাকেন। এছাড়া দ্রুতগামীদের তুলনায় তাদের সংক্রমিত হওয়ার হারও আড়াই গুণ বেশি বলে দাবি করা হয়েছে। এ গবেষণার ফলাফল ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অব অবেসিটি নামক বিজ্ঞান বিষয়ক সাময়িকিতে প্রকাশ হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আইই

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন