বিজ্ঞাপন

অশান্তি তৈরি করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না: র‌্যাব ডিজি

March 18, 2021 | 7:31 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

সুনামগঞ্জ: সুনামগঞ্জের শাল্লায় ফেসবুকে হেফাজত নেতা মামুনুল হককে নিয়ে কটাক্ষ করে পোস্ট দেওয়াকে কেন্দ্র করে উপজেলার নোয়াপাড়া গ্রামে হিন্দুদের বাড়িতে হামলার ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) চৌধুরী আব্দুলাহ আল মামুন। এসময় তিনি কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, কেউ অশান্তি তৈরির চেষ্টা করলে কোনোভাবেই ছাড় দেওয়া হবে না।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) সকালে হেলিকপ্টারে করে শাল্লা উপজেলার নোয়াপাড়া গ্রামে পৌঁছান র‌্যাব ডিজি। এসময় হিন্দু সম্প্রদায়ের নাগরিকরা সেখানে মিছিল করেন। পরে র‌্যাব ডিজি সবাইকে নিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির ও বাড়িঘর পরির্দশন করেন।

পরির্দশন শেষে র‌্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আব্দুলাহ আল মামুন বলেন, বাংলাদেশ শান্তির দেশ। এই শান্তির দেশে যদি কেউ অশান্তি তৈরি করে, তাদের কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না। গতকাল (বুধবার) এই গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়রে ওপর যে হামলা হয়েছে, সেটি অত্যন্ত দুঃখজনক। এই ঘটনায় যারা জড়িত, তাদের কেউ রেহাই পাবে না। তাদের খুঁজে বের করে পুরো ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে যারাই দোষী, তাদেরই আইনের আওতায় আনা হবে।

বিজ্ঞাপন

এই গ্রামের নিরাপত্তার স্বার্থে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পর্যাপ্তসংখ্যক সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানান র‌্যাব ডিজি। এসময় তিনি সংকীর্ণ দৃষ্টিভঙ্গি ত্যাগ করে সব ধর্মের প্রতি সমান উদার হওয়ার আহ্বান জানান।

পরিদর্শনের সময় র‌্যাব মহাপরিচালকের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ র‌্যাব-৯-এর লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবু মুসা মো.শরীফুল ইসলাম, সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, লেফটেন্যান্ট কমান্ডার ফিঞ্চন আহমেদ, এ এসপি মো. আব্দুল্লাসহ অন্যরা।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, হেফাজত নেতা মামুনুল হককে নিয়ে এক ফেসবুক পোস্টের জের ধরে বুধবার সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের অধিবাসীদের কমপক্ষে ৮৮টি ঘরবাড়ি ভাঙচুর করা হয়। এসময় গ্রামের পাঁচটি মন্দিরও ভাঙচুর করা হয়। জানা যায়, ঝুমন দাস আপন (২৩) ফেসবুকে ওই পোস্ট দিয়েছিলেন। তাকে এরই মধ্যে আটক করেছে পুলিশ।

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন