বিজ্ঞাপন

‘ডি-এইট রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে আরও শক্তিশালী ঐক্য প্রয়োজন’

April 7, 2021 | 9:58 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: চলমান বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে নিজেদের স্বার্থে উন্নয়নশীল আট দেশের জোট ডি-এইট এর রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে আরও শক্তিশালী ঐক্য গড়তে হবে। এই জোটের মোট জনসংখ্যার ১৯ শতাংশ ১৫ থেকে ২৪ বছর বয়সী তরুণ। এদের কাজে লাগাতে হবে। পাশাপাশি অর্থনৈতিক ভিত্তি আরও মজবুত করতে প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে নতুন নতুন উদ্ভাবন করতে হবে। এই জোটের দেশগুলোর মধ্যে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে ব্যবসা-বাণিজ্য কিভাবে বাড়ানো যায়, সে বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে হবে।

বিজ্ঞাপন

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন উন্নয়নশীল আট দেশের জোট ডি-এইটের মন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলনে বুধবার (৭ এপ্রিল) এ মন্তব্য করেন। ডি-এইট শীর্ষ সম্মলনে বাংলাদেশ এবার স্বাগতিক দেশ। করোনা সংক্রমণের কারণে এবারের সম্মেলনটি ভার্চুয়াল মাধ্যমে হচ্ছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, চতুর্থ শিল্প বিল্পবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা এবং নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে ডি-৮ রাষ্ট্রগুলো যেন খাপ খাইয়ে চলতে পারে, সেদিকে খেয়াল রেখে এবারের প্রতিপাদ্য ঠিক করা হয়েছে। ডি-৮ অন্তর্ভুক্ত দেশগুলোর যুব সম্প্রদায় যেন তাদের সুপ্ত সম্ভাবনাকে সর্বোচ্চভাবে বিকশিত করে নিজ নিজ দেশের উন্নয়নে সক্রিয়ভাবে অংশগহণ করতে পারে, সে প্রত্যাশাকে সামনে রেখে সম্মেলনটির আয়োজক দেশ হিসেবে বাংলাদেশ এবারের শীর্ষ সম্মেলনের প্রতিপাদ্য বিষয় ঠিক করেছে।

বিজ্ঞাপন

উন্নয়নশীল এই আট দেশের জোটের দেশগুলোর মধ্যে আরও ঐক্য গড়ার আহ্বান জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, গোটা বিশ্ব এখন করোনা সংক্রমনের আক্রমণে বিপর্যস্ত। নতুন এই দুর্যোগ মোকাবিলা করতে হলে এবং এই জোটের দেশগুলোর ভবিষ্যৎ স্বার্থে তাদের মধ্যে আরও দৃঢ় ঐক্য প্রয়োজন।

সারাবাংলা/জেআইএল/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন