বিজ্ঞাপন

দিনদুপুরে ঘরে ঢুকে বন্ধুকে জবাই করে হত্যার অভিযোগ

April 10, 2021 | 5:36 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

সাতক্ষীরা: সাতক্ষীরা সদরের কাশেমপুর এলাকায় দিন দুপুরে ঘরে ঢুকে নিজের বন্ধুকে ধারাল ছুরি দিয়ে জবাই করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক কিশোরের বিরুেদ্ধ। পুলিশ বলছে, বন্ধুকে হত্যার পর সে নিজেই গিয়ে তার বাবাকে এ খবর দিয়ে বন্ধুর লাশ উদ্ধার করতে বলেছে।

বিজ্ঞাপন

শনিবার (১০ এপ্রিল) দুপুর দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত কিশোরের নাম সালাহউদ্দীন আহমেদ (১৪)। সে কাশেমপুর মালিপাড়া গ্রামের শাহজান আলী ওরফে বাবু সরদারের ছেলে। তাকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তারই বন্ধু সাগর হোসেনের (১৫) বিরুদ্ধে। সে রসুলপুর এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে।

নিহত সালাহউদ্দীন আহমেদের বাবা শাহজাহান আলীর বরাত দিয়ে সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বুরহান উদ্দিন জানান, বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে সাগর হোসেন তার বন্ধু ইজিবাইকচালক সালাউদ্দিনের ঘরে ঢোকে। এক পর্যায়ে সে তাকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে গলাকেটে হত্যা করে। এরপর সে তাদের বাড়িতে গিয়ে তার বাবা শহিদুল ইসলামকে এ খবর জানায়।

বিজ্ঞাপন

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানিয়েছে, নিহত সালাউদ্দিন ও সাগর হোসেন দু’জনেই মাদকাসক্ত ছিল। তারা মাদক কারবারের সঙ্গেও জড়িত ছিল বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অন্যদিকে একটি ইজিবাইক বেচাকেনা নিয়ে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছিল। এর কোনো একটি কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটে থাকতে পারে বলে পুলিশের ধারণা।

খবর পাওয়ার পরপরই ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। এ ঘটনার পর সাগর ও তার বাবা পলাতক রয়েছেন। তবে, এ ঘটনায় পুলিশ রসুলপুর গ্রামের রফিক নামের এক যুবককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য নিহত সালাউদ্দিনের লাশ সাতক্ষীরা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন