বিজ্ঞাপন

লঙ্কা বধের টোটকা বাতলে দিলেন খালেদ মাহমুদ

April 12, 2021 | 4:21 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

শ্রীলঙ্কাকে তাদের মাটিতে হারাতে সতীর্থদের প্রতিটি সেশনেই জয়ের উদাত্ত আহবান জানিয়েছেন বাংলাদেশ দলপতি মুমিনুল হক। পাঁচ দিনে পনেরটি সেশনের একটিতেও পিছেয়ে থাকলে চলবে না, সিরিজপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে একথা তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন। এবার টিম লিডার খালেদ মাহমুদ সুনজন বললেন, লঙ্কা বধে ইতিবাচক ও আক্রমণাত্মক ক্রিকেটের কোন বিকল্প নেই।

বিজ্ঞাপন

নিজেদের কন্ডিশনে প্রতিপক্ষ বধে শ্রীলঙ্কা কতটা পারঙ্গম সেটা কমবেশি সবারই জানা। তবুও বিনা যুদ্ধে হাল ছাড়ার পক্ষপাতি নন সফরে বাংলাদেশ দলের টিম লিডার খালেদ মাহমুদ। তার একটাই কথা-যেহেতু স্কিলের দিক থেকে তামিম-মুশফিক-মুমিনুলরা স্বাগতিকদের চেয়ে কোনভাবেই পিছিয়ে নেই তাহলে কেন ইতিবাচক ও আক্রমনাত্মক ক্রিকেট নয়? সেই সঙ্গে নিজেদের সেরাটি উজাড় করে দিয়ে দলের পরিকল্পনার বান্তবায়ন ঘটাতে পারলে বিজয় তিলক পড়া কঠিন হলেও অসম্ভব হবে না।

‘এই জিনিসটা মাথায় নিয়েই খেলতে হবে, পজিটিভ, আক্রমনাত্মক ক্রিকেট। আমি সবসময় পজিটিভ ক্রিকেট খেলার কথা বলি, অ্যাটিচিউড অনেক গুরুত্বপূর্ণ। যে অ্যাটিচিউড আমি দেখেছি দুই বছর আগে। সেরকমটা দেখতে চাই, মাঠে লড়াই করবে, ফল কী হবে পরে দেখা যাবে। কিন্তু আমরা লড়াই করতে চাই।’

বিজ্ঞাপন

‘কন্ডিশনটা আমরা জানি ওখানে এখন গরম থাকে বেশি। উইকেটটা ভালো থাকে। শ্রীলঙ্কার কন্ডিশনের শ্রীলঙ্কা বেশ শক্ত প্রতিপক্ষ, কিন্তু আমরা বিশ্বাস করি আমরা স্কিলের দিক থেকে পিছিয়ে নেই, ভালো দল। আমরা যদি আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলতে পারি, প্রক্রিয়াটা ঠিক রাখতে পারি, তবে আশা করি ভালো করব।’ যোগ করেন খালেদ মাহমুদ।

লঙ্কা বধের টোটকা বাতলে দিলেন খালেদ মাহমুদ

বিজ্ঞাপন

সিরিজের প্রতিটি ম্যাচেই সেশন বাই সেশন ধরে এগুতে পারলে এবং লম্বা সময় মনোযোগ ধরে রাখতে পারলে ফেব্রুয়ারিতে চট্টগ্রামে গড়ান উইন্ডিজ সিরিজের পুনরাবৃত্তি হবে না বলেও মত তার।

‘অবশ্যই আমরা চাই জিততে। রেজাল্ট কি হবে...। আমরা ওখানে সেরা ক্রিকেট খেলতে চাই। যে দল ভালো খেলবে তারাই জিতবে। পাঁচ দিনের খেলা এ কারণে সেশন বাই সেশন ধরে এগোতে হবে। চট্টগ্রাম টেস্টে (উইন্ডিজের বিপক্ষে) আমরা চার দিন ডমিনেট করেও হেরে গেছি, এমনটা করতে চাই না। লম্বা সময় মনোযোগ ধরে রাখতে চাই।’

বিজ্ঞাপন

অনেকেই বলছেন এখন সময় এসেছে সিনিয়রদের পাশাপাশি জুনিয়রদেরও দলের হাল ধরতে হবে। কিন্তু বিস্ময়ের ব্যাপার হল, ক্রিকেট রণে খালেদ মাহমুদের অভিধানে জুনিয়র বা তরুণ বলতে কোন শব্দই নেই।

‘আমি তরুণ বলিনা, আমার কাছে সবাই সমান আসলে। যদিও তামিম, মুশফিক মুমিনুলের অভিজ্ঞতা অনেক। তারপরও দায়িত্ব সবার সমান। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দিয়ে আপনি যখন নামবেন তখন দায়িত্বটা সবারই সমান। ভালো খেলার দায়িত্ব সবারই। ’

বিজ্ঞাপন

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ সিরিজের টেস্ট খেলতে দেশ ছেড়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইটে সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় দ্বীপ দেশটির উদ্দেশে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়ে গেছে লাল সবুজের দল।

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএইচএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন