বিজ্ঞাপন

সুপার লিগের অনুমোদন সম্ভব নয়: ফিফা সভাপতি

April 20, 2021 | 3:09 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

রোববার রাতে সুপার লিগের আত্মপ্রকাশের পর পর কড়া হুঁশিয়ারি বাণী শুনিয়েছিল ফুটবলার সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফা। জানান দিয়েছিল সুপার লিগে অংশগ্রহণ করা ফুটবলাররা জাতীয় দলের হয়ে খেলতে পারবেন না। তবে পরবর্তীতে সুর পাল্টে তারা নরম হয়েছে। আর ফুটবলের সকল সংস্থার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন যাতে করে আটকানো সুপার লিগ।

বিজ্ঞাপন

তবে এই দুইদিন ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনোর কাছ থেকে আসেনি কোনো বিবৃতি। অবশেষে সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খুললেন ফুটবলের সর্বোচ্চ অভিভাবক জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।

‘বিদ্রোহী’ লিগের ঘোষণায় তোলপাড় ফুটবল বিশ্বে, জেনে নিন আদ্যোপান্ত

বিজ্ঞাপন

রিয়াল মাদ্রিদ প্রেসিডেন্ট ফ্লোরিন্তিনো পেরেজকে সভাপতি করে রোববার (১৮ এপ্রিল) রাতে ঘোষণা এসেছে ইউরোপিয়ান সুপার লিগের। ইউরোপের শীর্ষ ১২টি ক্লাব নিয়ে এ বছরের আগস্টেই মাঠে গড়াতে পারে নতুন এই সুপার লিগ। ইতোমধ্যেই ইউরোপিয়ান শীর্ষ ক্লাবগুলো অফিসিয়ালি এই টুর্নামেন্ট নিয়ে বিবৃতিও দিয়েছে। এর প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো জানালেন, কোনোভাবেই সুপার লিগকে ফিফা সমর্থন করতে পারে না।

ইনফান্তিনো বলেন, 'এটা আমাদের কাছে পরিস্কার। ফিফা কোনোভাবেই সুপার লিগকে অনুমোদন দিচ্ছে না। তাদের অনুমোদন দেওয়া অসম্ভব। আর এ ব্যাপারে কোনো সংশয় নেই।'

বিজ্ঞাপন

ফিফা সভাপতি আরও বলেন, 'আমি ১৬ বছর উয়েফার সঙ্গে কাজ করেছি। আমি কঠোর পরিশ্রম করেছি ফুটবলকে আরও সাফল্যমণ্ডিত করতে। প্রত্যেকটা ক্লাবকেই দায়িত্ব নিতে হবে এবং তাদের সমর্থকদের জন্য কাজ করতে হবে। যাদের জন্য আজ ফুটবল এই পর্যায়ে তাদের জন্য কাজ করতে হবে।'

সুপার লিগের প্রতিষ্ঠাতে ১২টি ক্লাবকে সরাসরি কোনো হুঁশিয়ারি বাক্য উচ্চারণ করেননি ইনফান্তিনো। তবে সতর্ক করেছেন এ ব্যাপারে।

বিজ্ঞাপন

'হয় আপনি এটাতে থাকবেন না হয় থাকবেন না। এর মধ্যবর্তী কোনো স্থান নেই। ফিফা, উয়েফা গণতান্ত্রিক সংস্থা। এখানে যে কেউই যেকোনো বিষয় উপস্থাপন করতে পারে এবং সেটা সম্মানের সহিত আলোচনাতেও আসতে পারে। তবে কেউ যদি ভিন্ন কোনো পন্থা অবলম্বন করে, তবে তাদের তা নিয়ে ভুগতে হবে। যে ক্লাবগুলো এই সুপার লিগ আয়োজন করছে তারা নিজেদের কর্মকাণ্ডের জন্য নিজেরাই দায়ি থাকবে।'

রোববার (১৮ এপ্রিল) রাতে ঘটা করে ইউরোপের শীর্ষ ১২টি ক্লাব এক যোগে ঘোষণা দেয় ইউরোপিয়ান সুপার লিগের। আর এই টুর্নামেন্ট মাঠে গড়াবে বর্তমান উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের পরিবর্তে। আর তাতেই বেশ ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছে ইউরোপিয়ান ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা উয়েফা। জানিয়ে দিয়েছেন এই নতুন লিগের সঙ্গে যুক্ত সকল ক্লাবকে প্রয়োজনে নিষিদ্ধও করা হবে। আর এই ১২টি ক্লাবের মধ্যেই আছে এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগের তিন সেমিফাইনালিস্ট রিয়াল মাদ্রিদ, ম্যানচেস্টার সিটি ও চেলসি।

বিজ্ঞাপন

এদিকে ঘনিয়ে আসছে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগও। তবে তার আগেই এই তিন ক্লাবের ওপর আসতে পারে নিষেধাজ্ঞা। এমনটাই জানিয়েছেন ড্যানিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান এবং উয়েফার সাবেক সদস্য জ্যাসপার মোলার।

এ ব্যাপারে ইনফান্তিনো বলেন, 'ফিফা, উয়েফাকে পূর্ণ সমর্থন দিচ্ছে। আমার, আমাদের কাজ হচ্ছে ক্লাব, জাতীয় দল এবং টুর্নামেন্টগুলোকে রক্ষা করা।'

১২ শীর্ষ ক্লাব নিয়ে আসছে ইউরোপিয়ান সুপার লিগ

‘বিদ্রোহী লিগ’ বাঁচাবে ফুটবল: ফ্লোরিন্তিনো পেরেজ

সুপার লিগে খেললে নিষিদ্ধ জাতীয় দলে

নতুন ফরম্যাটে আসছে চ্যাম্পিয়নস লিগ

সেমিফাইনালের আগেই বহিষ্কার হতে পারে রিয়াল, ম্যানসিটি ও চেলসি

 

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন