বিজ্ঞাপন

এক মাসের মধ্যে ফল প্রকাশ করবে এনটিআরসিএ

April 21, 2021 | 6:06 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তৃতীয় ধাপে শিক্ষক নিয়োগ দিতে যে অনলাইন আবেদন শুরু হয়েছে তার ফল এক মাসের মধ্যে প্রকাশ করার চিন্তা করছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। এই ধাপে সারা দেশে ৫৪ হাজার ৩০৪টি শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

শিক্ষক নিয়োগের জন্য এবারের আবেদন শেষ হবে আগামী ৩০ এপ্রিল। আবেদনের এক মাসের মধ্যে নির্বাচিত প্রার্থীদের মোবাইলে এসএমএস-এর ফল জানিয়ে দেওয়া হবে। বুধবার (২১ এপ্রিল) এনটিআরসিএ থেকে এই খবরটি জানা গেছে।

এনটিআরসিএ বলছে, ৩০ এপ্রিল রাত ১২ পর্যন্ত চাকরিপ্রার্থীরা আবেদন করতে পারবে। এর এক মাসের মধ্যে আমরা জানিয়ে দেব কে কোথায় নিয়োগ পাচ্ছে। নিয়োগ প্রলম্বিত করার কোনো ইচ্ছে আমাদের নেই। ফল পাওয়ার পর ১৫ দিনের মধ্যে তাদেরকে নির্ধারিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যোগদান করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

এনটিআরসিএ আরও বলছে, কেউ যদি এই সময়ের মধ্যে কাজে যোগদান করতে ব্যর্থ হয় তাহলে তার বদলে অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে প্রথমজনকে নিয়ে নেওয়া হবে। তাকে কাজে যোগ দেওয়ার জন্য সাতদিন সময় দেওয়া হবে।

এবার সারাদেশে নিয়োগ হতে যাওয়া ৫৪ হাজার ৩০৪টি পদের মধ্যে স্কুলে ১৯ হাজার ৮৫০টি, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ১৯ হাজার ১৫৪টি, কলেজে ৬ হাজার ৯৮৮টি শূন্য পদ রয়েছে। এর মধ্যে অবশ্য আদালত ২ হাজার ১৪৬টি পদে শিক্ষক নিয়োগ স্থগিত করেছে। নিয়োগ পাওয়া শিক্ষকরা ধীরে ধীরে এমপিও সুবিধার আওতায় আসবে।

বিজ্ঞাপন

এনটিআরসিএ-এর চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন বলেন, ‘আমরা এই নিয়োগটি দ্রুততার সঙ্গে শেষ করতে চাই। প্রার্থীরা এক মাসের মধ্যে কর্মস্থল পেয়ে গেলে এটা তাদের জন্য মঙ্গলজনক হবে। এরপর চতুর্থ ধাপেও নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হবে। সেখানেও বড় সংখ্যক শিক্ষক নিয়োগ দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’

উল্লেখ্য, গত ৩০ মার্চ শিক্ষক নিয়োগে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এরপর এপ্রিলের ৪ থেকে আবেদন শুরু হয়। শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেতে এখন পর্যন্ত ৪৪ লাখ আবেদন জমা পড়েছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/টিএস/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন