বিজ্ঞাপন

২৪ ঘণ্টায় ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নিলেন ১ লাখ ৩৭ হাজার ৭৯৮ জন

April 21, 2021 | 11:46 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সারাদেশে নভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ শুরুর ১১তম দিনে ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন ১ লাখ ৩৭ হাজার ৭৯৮ জন। এর মধ্যে রাজধানীতে দ্বিতীয় ডোজের ভ্যাকসিন নিয়েছেন ২৩ হাজার ৫৮৫ জন। এছাড়া দেশে জাতীয়ভাবে ভ্যাকসিন প্রয়োগের ৬১তম দিন প্রথম ডোজের ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১৬ হাজার ৮১৭ জন। এর মধ্যে রাজধানীতে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৩ হাজার ৫০৮ জন।

বিজ্ঞাপন

এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত ৬১ দিনে মোট ৫৭ লাখ ৬১ হাজার ৯০২ জন প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এর মধ্যে শুধুমাত্র রাজধানী ঢাকায় ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৯ লাখ ৮ হাজার ১২৩ জন। আর ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহীদের নিবন্ধন সংখ্যা পেরিয়ে গেছে ৭১ লাখ।

বুধবার (২১ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদফতরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমানের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বুধবার বিকেল ৫টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য সারাদেশে নিবন্ধিত ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭১ লাখ ৬৮ হাজার ৮০৯ জনে।

দ্বিতীয় ডোজ ভ্যাকসিন প্রয়োগের তথ্য:

বিজ্ঞাপন

২১ এপ্রিল ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন ১ লাখ ৩৭ হাজার ৭৯৮ জন। এদিন রাজধানী ঢাকায় ১৫ হাজার ৩৭২ জন পুরুষ ও ৮ হাজার ২১৩ জন নারী ভ্যাকসিন নিয়েছেন। অর্থাৎ ঢাকায় দ্বিতীয় ডোজ ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরুর পরে ১১ দিনে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ২ লাখ ৬৭ হাজার ৮১১ জন। এর মধ্যে পুরুষ এক লাখ ৭৯ হাজার ৮৫৩ জন ও মহিলা ৮৭ হাজার ৯৫৮জন।

এখন পর্যন্ত রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে ১২ লাখ ৫ হাজার ৭৫৮ জন পুরুষ ও ৬ লাখ ১০ হাজার ২২৯ জন নারী ভ্যাকসিন নিয়েছেন। দেশে এখন পর্যন্ত দ্বিতীয় ডোজের ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১৮ লাখ ১৫ হাজার ৯৮৭ জন।

বিজ্ঞাপন

প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন প্রয়োগের তথ্য:

জাতীয় পর্যায়ে ভ্যাকসিন প্রয়োগের ৬১তম দিন, অর্থাৎ ২১ এপ্রিলের তথ্য বলছে- এদিন রাজধানী ঢাকায় ২ হাজার ৮৩ জন পুরুষ ও এক হাজার ৪২৫ জন নারী ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ৬১ দিনে ঢাকায় যারা ভ্যাকসিন নিয়েছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ৫ লাখ ৮০ হাজার ৭৭৫ জন, নারী ৩ লাখ ২৭ হাজার ৩৪৮ জন।

বিজ্ঞাপন

এই দিন রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে ১০ হাজার ২২৮ জন পুরুষ ও ৬ হাজার ৫৮৯ জন নারী ভ্যাকসিন নিয়েছেন। সব মিলিয়ে এদিন সারাদেশে ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১৬ হাজার ৮১৭ জন।

এই সংখ্যাসহ ২৭ জানুয়ারি থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত দেশে মোট ৩৫ লাখ ৭৩ হাজার ৪৪৬ জন পুরুষ ও ২১ লাখ ৮৮ হাজার ৪৫৬ জন নারী ভ্যাকসিন নিয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, ভ্যাকসিন প্রয়োগ পরবর্তী সময়ে কয়েকজনের হালকা জ্বর, গায়ে ব্যথার মতো কিছু লক্ষণ দেখা গেলেও এখন পর্যন্ত সবাই সুস্থ আছেন।

এর আগে, গত ২৭ জানুয়ারি দেশে প্রথম করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। ওইদিন মোট ২৬ জনকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়।

পরদিন ২৮ জানুয়ারি রাজধানীর পাঁচটি হাসপাতালে ভ্যাকসিন দেওয়া হয় ৫৪১ জনকে। এই ৫৬৭ জনকে ১০ দিন পর্যবেক্ষণের পর ৭ ফেব্রুয়ারি দেশব্যাপী ভ্যাকসিন প্রয়োগ কর্মসূচি শুরু হয়। ওইদিন ৩১ হাজার ১৬০ জন ভ্যাকসিন নেন।

ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য ‘সুরক্ষা’ ওয়েবসাইট ভিজিট করে নিবন্ধন করতে হবে আগ্রহীদের। জাতীয় পরিচয়পত্র ও একটি মোবাইল নম্বর থাকলেই ‘সুরক্ষা’ প্ল্যাটফর্মে নিবন্ধন করা যাবে। নিবন্ধনের পর ভ্যাকসিন কার্ড ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে রাখতে হবে। পরে নির্ধারিত মোবাইল নম্বরে এসএমএস করে ভ্যাকসিন নেওয়ার তারিখ জানানো হবে। ওই তারিখে ভ্যাকসিন কার্ড নিয়ে নির্ধারিত কেন্দ্রে গেলেই দেওয়া হবে ভ্যাকসিন। একইসঙ্গে দ্বিতীয় ডোজের তারিখও জানিয়ে দেওয়া হবে।

সারাবাংলা/এসবি/এসএসএ/

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন