বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিন বাংলাদেশের

April 30, 2021 | 6:09 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

পাল্লেকেলে টেস্টের দ্বিতীয় দিনটা শেষ হলো বৃষ্টির আক্ষেপ নিয়ে। চা বিরতির পরপর প্রথমে বৃষ্টির কারণে বন্ধ হয়ে গেল খেলা। তারপর আলোকস্বল্পতার বিড়ম্বনা। দুই মিলিয়ে আম্পায়ার যখন আগেভাগেই খেলা শেষ করে দিলেন দিনের খেলা তখনও ২৪ ওভার বাকি! বৃষ্টি আর আলোকস্বল্পতার এই প্রতিবন্ধকতাটুকু বাদ দিলে আজ দ্বিতীয় দিনটি বাংলাদেশের। আজ ১৭৮ রান তুলেছে শ্রীলঙ্কা। অন্যদিকে বাংলাদেশ তুলে নিয়েছে পাঁচটি উইকেট।

বিজ্ঞাপন

তাসকিনরা যেভাবে দাপুটে বোলিং করছিলেন তাতে প্রায় একটি সেশন বৃষ্টির পেটে না গেলে লঙ্কানদের আজই হয়তো গুটিয়ে দিত বাংলাদেশ! ৬ উইকেটে ৪৬৯ রানে আজ দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে শ্রীলঙ্কা। উইকেটে আছেন নিরোশান ডিকওয়েলা (৬৪) ও রমেশ মেন্ডিস (২২)।

বৃষ্টির আক্ষেপটা বাদ দিলে আজকের দিনটা নিজের দাবি করতে পারেন বাংলাদেশি পেসার তাসকিন আহমেদও! সতীর্থ ফিল্ডারদের কারণে আগের দিন দুর্দান্ত বোলিং করেও সাফল্য মিলেনি। কিন্তু তাতে বদলে যাওয়া তাসকিনের আত্মবিশ্বাসে যে চিড় ধরাতে পারেনি সেটা বুঝালেন আজ দ্বিতীয় দিন। পুরোটা দিনই দুর্দান্ত বোলিং করে গেছেন তারকা পেসার।

বিজ্ঞাপন

দিনের সকালটা অবশ্য ছিল শ্রীলঙ্কার দুই অপরাজিত ব্যাটার লাহিরু থিরিমান্নে ও ওসাদা ফার্নান্দোর। দিনের খেলা শুরু হওয়ার সময় ১৩১ রানে অপরাজিত ছিলেন থিরিমান্নে, ওশাদা ৪০ রানে। আজ দিনের প্রথম ঘণ্টায় তাসকিন-শরিফুলের গতির ঝড়ে বারবার পরাস্ত হয়েছেন দুজন। কিন্তু উইকেট পড়েনি। ধারাবাহিকতার সাফল্য তাসকিন পেয়েছেন পানি পানের বিরতির পর।

থিরিমান্নে পানি পানের বিরতির পর একটু অমনোযোগী হয়ে পড়লেন কিনা কে জানে! তাসকিনের লেগ স্ট্যাম্পের বাইরের বলটি গ্লান্স করতে চেয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েছেন লঙ্কান তরুণ। তার আগে ২৮৯ বল খেলে ১৫টি চারের সাহায্যে ১৪০ রান করেছেন।

বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিন বাংলাদেশের

দুই বল পর আর একটা উইকেট পেতে পারতেন তাসকিন। তার লেংথ বল ডিফেন্স করতে গিয়ে মিস করেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। বল ব্যাটের কানা ছুঁয়ে বল উইকেটরক্ষক লিটন দাসের গ্লাভসে চলে যায়। কিন্তু বুঝতে না পেরে বাংলাদেশি ফিল্ডাররা আবেদনই করলেন না! অবশ্য এই হতাশা বাড়তে দেননি তাসকিন। নিজের পরের ওভারেই ম্যাথুসকে (৫) উইকেটের পেছনে ক্যাচ বানান গতি তারকা। তার কিছুক্ষণ পর প্রথম ইনিংসে দেড়শ ছড়ানো ধনঞ্জয়া ডি সিলভাকে (২) ফিরিয়ে দিনের প্রথম সেশনটা বাংলাদেশের করে দেন তাইজুল ইসলাম। আগের টেস্টে দেড়শোর্ধ্ব রানের ইনিংস খেলা ধনঞ্জয়া তাইজুলের লাফিয়ে ওঠা বলে খোঁচা মেরে স্লিপে ক্যাচ দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয় সেশনের শুরুতে আবারও শ্রীলংকানদের প্রতিরোধ। ওশাদা ফার্নান্দো ও পাথুম নিশাঙ্কা স্কোরবোর্ডে রানের গতি বাড়ান। ওশাদা ধীরে ধীরে সেঞ্চুরির দিকে এগুচ্ছিলেন। সেখানেই আবারও তাসকিনের আঘাত। নিশাঙ্কাকে ৩০ রানের মাথায় সরাসরি বোল্ড করেন তাসকিন। শ্রীলংকান তরুণ বুঝতেই পারেননি তাসকিনের বলটি। এরপর সেট ব্যাটসম্যান ওশাদার ফেরার পালা।

মেহেদি হাসান মিরাজকে সুইচ খেলতে গিয়ে বল বাতাসে ভাসান ওশাদা। লিটন দাসের সহজ ক্যাচ হওয়ার আগে ২২১ বলে ৮ বাউন্ডারিতে ৮১ রান করেন তিনি। তাসকিনের আগুনে গোলা এবং তাইজুলদের স্পিন যেভাবে কাজ করছিল মনে হচ্ছিল দ্বিতীয় দিনেই বুঝি প্রথম ইনিংস শুরু করতে পারবে বাংলাদেশ। কিন্তু নিরোশান ডিকওয়েলার প্রতিরোধ আর বৃষ্টি এবং আলোকস্বল্পতা মিলিয়ে সেটা আর হয়নি।

বিজ্ঞাপন

দিন শেষে ৬৪ বলে ঠিক ৬৪ রান করে অপরাজিত ডিকওয়েলা। ইনিংসে চার মেরেছেন ৭টি। অপর প্রান্তে রমেশ মেন্ডিস ২২ রানে অপরাজিত।

সারাবাংলা/এসএইচএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন