বিজ্ঞাপন

‘পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ভারতের সঙ্গে সব সীমান্ত বন্ধ’

May 3, 2021 | 4:53 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকায় বাংলাদেশের সঙ্গে নৌ, স্থল ও বিমান সবধরনের সীমান্ত দিয়ে যাত্রী চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। গত ২৬ এপ্রিল থেকে ১৪ দিন বন্ধ থাকার কথা থাকলেও স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালিক জানিয়েছেন, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সীমান্ত বন্ধ থাকবে। সোমবার (৩ মে) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সীমান্ত বন্ধ রাখার যে সিদ্ধান্ত রয়েছে তা আপাতত পরিবর্তন হচ্ছে না। যেভাবে বন্ধ রয়েছে সীমান্ত, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সেভাবেই থাকবে।’

উল্লেখ্য, গত এক মাস ধরে ভারতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ব্যাপক হারে বেড়েছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশে সংক্রমণের ব্যাপকতা যা ছড়িয়ে না পড়ে সেজন্য গত ২৬ এপ্রিল সকাল থেকে ভারতের সঙ্গে সবগুলো সীমান্ত দিয়ে যাত্রী চলাচল নিষিদ্ধ করে দেয় সরকার। তবে পন্য আমদানি-রফতানি চালু রয়েছে। আর ভারতে অবস্থানরত বাংলাদেশি নাগরিক যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে বা হচ্ছে তারা সেখানে থাকা বাংলাদেশ দূতাবাসের অনুমতি নিয়ে দেশে ফিরতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রেও স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশনা মেনে ১৪ দিন কোয়ারেনটাইনে থাকার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/জেআর/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন