বিজ্ঞাপন

চলতি সপ্তাহে আসতে পারে চীনের ভ্যাকসিন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

May 3, 2021 | 5:32 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: চলতি সপ্তাহেই অর্থাৎ আগামী ১০ মে’র মধ্যে চীনের উপহার হিসেবে দেওয়া পাঁচ লাখ ভ্যাকসিন দেশে আসতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তবে যে ভ্যাকসিন কেনার কথা রয়েছে তা আসতে দেরি হবে বলেও জানান তিনি। সোমবার (৩ মে) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান তিনি।

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘চীন সরকার বলেছে বাংলাদেশকে উপহার হিসেবে পাঁচ লাখ ভ্যাকসিন দেবে।’ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, ‘চীনের উপহার পাওয়া ভ্যাকসিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আনার ব্যবস্থা করবে। আর সেটা আগামী ১০ মে’র মধ্যেই হয়তো পাওয়া যাবে। তবে সরকারের যে ভ্যাকসিন চীন থেকে কেনার কথা রয়েছে তা আসতে আরও সময় লাগবে।’

কেন সময় দরকার হবে? তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘চীন থেকে ভ্যাকসিন কেনার জন্য আমরা প্রস্তাব পাঠিয়েছি। চীনের পক্ষ থেকে সারা পাওয়ার পরই আলোচনা শুরু হবে।’ তিনি বলেন, ‘চীনের চার থেকে পাঁচ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন পেলেও নেওয়া হবে।’

বিজ্ঞাপন

এছাড়া ভ্যাকসিন পেতে রাশিয়ার সঙ্গেও আলোচনা চলমান বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘রাশিয়া ভ্যাকসিন দিতে চায় এবং উৎপাদনও করাতে চায়। আমরা চীন, রাশিয়া দুই দেশের সঙ্গেই কথা বলেছি।’

উল্লেখ্য, চুক্তি করেও দুই মাস ধরে ভারতের বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সিরাম ইনস্টিটিউট বাংলাদেশকে ভ্যাকসিন না দেওয়ায় সরকারের ভ্যাকসিন কার্যক্রম ঝুঁকিতে পড়েছে। একদিকে ভ্যাকসিনের সংখ্যা কমে এসেছে অন্যদিকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তি। এমন পরিস্থিতিথিতে সিরামের সঙ্গে আলোচনার পাশাপাশি চীন, রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে ভ্যাকসিন পেতে আলোচনা অব্যাহত রেখেছে সরকার।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/জেআর/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন