বিজ্ঞাপন

ডিপিএল দিয়ে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি

May 3, 2021 | 6:24 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

দেশের ক্রিকেটের ব্যস্ত সূচি ও চলতি বছরে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবি। টাইগার ক্রিকেট প্রশাসনের এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত এবং এমন আয়োজনের জন্য তাদের ধন্যবাদও জানিয়েছেন এই টাইগার ব্যাটিং অলরাউন্ডার।

বিজ্ঞাপন

ধন্যবাদ জানিয়েছেন একারণেই যে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ঘরোয়া ক্রিকেটের এমন একটি আসর তাদের টেকনিক ও স্কিলের মান উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে। অপর কারণ হলো, টুর্নামেন্টটি মাঠে গড়ালে মহামারিকালে সে সকল ক্রিকেটারদের রুটি রুজির ব্যবস্থা হবে যারা জীবন ধারণের জন্য শুধুই ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের উপরে নির্ভরশীল।

শ্রীলংকা সিরিজ সামনে রেখে সোমবার (৩ মে) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুশীলন শেষে তিনি একথা জানান।

বিজ্ঞাপন

মোসাদ্দেক বলেন, ‘আমি মনে করি এটা অনেক বড় একটা উদ্যোগ। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে আমি ধন্যবাদ জানাই এত বড় একটা উদ্যোগ নেওয়ার জন্য। আসলে ডিপিএল (ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ) যখন আমরা খেলি তখন এখানে প্রায় ২০০ জন ক্রিকেটার খেলে। বেশিরভাগ ক্রিকেটারের রুটি রুজিই এটা, আমরা বেশিরভাগই এটা দিয়ে চলি। ডিপিএলটা গত বছর হয়নি, এবার যখন হচ্ছে আমি মনে করি খেলোয়াড়রা অনেক বেশি উপকৃত হবে। সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, সে ক্ষেত্রে এটা অনেক বড় উদ্যোগ যে আমরা ডিপিএলটা টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে খেলবো এবং সেটা সামনে বিশ্বকাপে আমাদের খুব সাহায্য করবে।’

নিউজিল্যান্ড সফরে অনুশীলনের সময় বাঁ-পায়ের হাঁটুতে চোট পাওয়ায় কিউইদের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন মোসাদ্দেক। সিরিজ শেষে দেশে ফেরার পরেও দেখা গেছে পা টেনে টেনে হাঁটছেন। বিসিবি’র মেডিকেলে বিভাগের দেওয়া চিকিৎসায় অবশ্য এখন পুরোপুরিই সুস্থ তিনি। ফলে লংকানদের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগে ব্যাটে-বলে শান দিচ্ছেন প্রাথমিক দলে ডাক পাওয়া এই টাইগার। দুই দিন হোম অব ক্রিকেটের নেটে ব্যাটিং, বোলিং শেষে তার অনুধাবন হলো আগের চেয়ে তিনি ভালো অবস্থায় আছেন যা তাকে আসন্ন সিরিজে প্রবল বিক্রমে ফেরার জ্বালানি যোগাবে। সেই লক্ষ্যে তাকে বেশ আত্মবিশ্বাসীও মনে হলো।

বিজ্ঞাপন

‘ইনজুরি থেকে সেরে ওঠার পর আমি ২-৩ দিন অনুশীলন করার সুযোগ পেয়েছি। এখানে আসার পরও দুইদিন অনুশীলন করলাম। অনেক ভালো অনুভব করছি। পায়ের যে অবস্থা ছিল সেখান থেকে অনেক উন্নতি হয়েছে। ব্যাটিং, বোলিং ও জিমও করলাম, কোনোকিছুতেই সমস্যা মনে হচ্ছে না।’

‘অবশ্যই আগের থেকে অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী। কারণ এখন যখন আমি ব্যাটিং, বোলিং করছি আমার মনে হচ্ছে আগের চেয়ে ভালো অবস্থায় আছি। এ জায়গা থেকে বলবো যে আমি আগের চেয়ে বেশি আত্মবিশ্বাসী। সাম্প্রতিক সময়ে আমাদের দলের যে অবস্থা, সবাই দেখছে যে আমরা একটা খারাপ সময় পার করছি। আমরা আশা করি খুব তাড়াতাড়ি এটা ওভারকাম করবো, দল খুব ভালোভাবে কামব্যাক করবে ইনশাআল্লাহ।’-যোগ করেন মোসাদ্দেক সৈকত।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে খেলতে চলতি মাসের ১৬ তারিখে আসার কথা রয়েছে শ্রীলংকা দলের। সিরিজের তিনটি ম্যাচ গড়ানোর কথা রয়েছে ২৩, ২৫ ও ২৭ মে।

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন