বিজ্ঞাপন

ধামরাইয়ে সৎ মেয়েকে ধর্ষণ: হাইকোর্টে আসামির জামিন খারিজ

May 3, 2021 | 8:44 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ঢাকার ধামরাইয়ে ১০ বছরের শিশু কন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগের মামলায় সৎ পিতা মোজাহারকে জামিন দেননি হাইকোর্ট। আসামির জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে সেটি খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (৩ মে) বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে আসামির আইনজীবী ছিলেন শাহাবুল আলম চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী মাইনুল হাসান।

শিশু কন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে মোজাহারের বিরুদ্ধে ধামরাই থানায় ২০২০ সালের ২১ মার্চ মামলা করেন তারই স্ত্রী।

বিজ্ঞাপন

মামলায় শিশুর মায়ের বরাত দিয়ে বলা হয়, মোজাহার তার দ্বিতীয় স্বামী। প্রথম স্বামী তালাক দেওয়ার পর ওই সংসারের থাকা একটি কন্যা সন্তান নিয়ে ১০ বছর আগে মোজাহারের সঙ্গে বিয়ে হয়। এরপর মুন্নু সিরামিকে চাকরি নেন ওই নারী। চাকরির কারণে মেয়েকে ঘরে রেখে শিশুটির মাকে কর্মস্থলে যাতায়াত করেন।

মামলায় আরও বলা হয়, এই সুযোগে তার দ্বিতীয় স্বামী ১০ বছরের মেয়েকে গত ১১ মার্চ ধর্ষণ করে। এই ধর্ষণের কথা জানালে তাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। পরবর্তীতে মেয়েটি ধর্ষণের ঘটনা তার মাকে বলে দেয়। এর আগেও তাকে এভাবে ধর্ষণ করা হয় বলে মেয়েটি অভিযোগ করে।

বিজ্ঞাপন

মামলার পরপরই ২১ মার্চ পুলিশ মোজাহারকে গ্রেফতার করে। এরপর থেকে মোজাহার কারাবন্দি রয়েছেন। এ অবস্থায় তার জামিনের জন্য হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। পরে আদালত আবেদনটি উত্থাপিত হয়রি মর্মে খারিজ করে দেন।

সারাবাংলা/কেআইএফ/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন