বিজ্ঞাপন

মনোযোগটা বেশি ফিল্ডিংয়ের ক্লাসেই

May 9, 2021 | 6:08 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

বাউন্ডারি লাইনে দাঁড়িয়ে লিটন দাস। সেন্টার উইকেট থেকে ব্যাটিং কোচ জন লুইস ব্যাটে-বলে সংযোগ করে বল উড়িয়ে পাঠালেন সীমানার কিছুটা বাইরে। পরীক্ষা ছিল লিটন ক্যাচটি সেভ করতে পারেন কিনা। না, তিনি পারেননি। কিছুটা লাফিয়ে উঠে বল মুঠোয় পেলেও তার দুই পা তখন সীমানার বাইরে! বল লুফে নিয়ে খুশি হলেও সীমানার বাইরে নিজের অবস্থান দেখে চকিত, চমকিত লিটন।

বিজ্ঞাপন

বল ছুঁড়ে লুইসের কাছে ফেরৎ পাঠাতেই আরেকটি ক্যাচ তুলে দিলেন লুইস। এবার তা সীমানার বেশ ভেতরে, তার অদূরেই। তবে এবার আর ভুল নয়। বেশ খানিকটা দৌঁড়ে বল মুঠোয় পুরে মাটিতে লুটিয়ে পড়লেন বাংলাদেশ দলের এই উইকেটরক্ষক ব্যাটার। দৌঁড়ে এত দূরত্ব অতিক্রম করে বল লুফে নেয়ার তৃপ্তি তার চোখ মুখ থেকে যেন ঠিকরে বেরুচ্ছিল।

নিঃশ্বাস দূরত্বে দাঁড়ান মুশফিকুর রহিম, ইমরুল কায়েস, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, সাইফ উদ্দিনসহ অনুশীলনে আসা দলের অন্যান্য সদস্যদেরও এভাবে প্রায় ৪০ মিনিট নিবিড় ক্যাচিং অনুশীলনে ঘাম ঝড়াতে দেখা গেল। বুঝতে বাকি রইল না নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলংকার বিপক্ষে সদ্য শেষ হওয়া টেস্ট সিরিজে মুমিনুলরা যেভাবে ক্যাচ মিসের মোহড়া দিয়েছেন শ্রীলংকার বিপক্ষে আসন্ন ওয়ানডে সিরিজে একই ভুলের পুনরাবৃত্তি চাইছে না টাইগার টিম ম্যানেজমেন্ট। সে কারণেই দিনের আড়াই ঘণ্টার অনুশীলনের ৪০ মিনিট জুড়েই থাকল ক্যাচিং অনুশীলন।

বিজ্ঞাপন

মনোযোগটা বেশি ফিল্ডিংয়ের ক্লাসেই

রোববার (৯ মে) দিনের শুরুটা হয়েছিল অবশ্য লো ক্যাচিং ও স্লিপ ক্যাচিং অনুশীলনের মধ্য দিয়ে। শ্রীলংকা সফর শেষে দেশে ফেরার পর আজই প্রথম অনুশীলনে যোগ দিলেন মুশফিক-তাসিকনরা। তামিম ইকবাল, নাজমুল হোসেন শান্ত ও শরিফুল ইসলাম ছাড়া শ্রীলংকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ সামনে রেখে প্রাথমিক দলে ডাক পাওয়াদের সবাই ছিলেন এই প্রস্তুতিতে। তাদের নিয়ে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সেন্টার উইকেট ঘেঁসে অনুশীলন শুরু করেন ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক। স্লিপ ক্যাচিং ও লোয় ক্যাচিং চলে প্রায় বিশ মিনিট ব্যাপী। পরে শুরু হয় হাই ক্যাচিং অনুশীলন।

বিজ্ঞাপন

ক্যাচিং অনুশীলন শেষ হতেই সেন্টার উইকেটের দুই নেটে ব্যাটিংয়ে নেমে পড়লেন মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ । তাদের বিপক্ষে নেট বোলিংয়ে ঝালিয়ে নিলেন মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, তাসকিন আহমেদ, তাইজুল ইসলাম, মেহেদি মিরাজ, নাসুম আহমেদরা।

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএইচএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন