বিজ্ঞাপন

বোরোর বাম্পার ফলন, রেকর্ড উৎপাদনের পথে দেশ

May 17, 2021 | 7:09 pm

এমদাদুল হক তুহিন, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: করোনা মহামারির মধ্যে দেশে বোরো ধান উৎপাদনে সুখবর মিলেছে। এবারের বোরোর বাম্পার ফলন গেল কয়েক বছরের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাচ্ছে। সারাদেশে এখন পর্যন্ত এই মৌসুমের ৮৫ ভাগ জমির ধান কাটা শেষ হয়েছে। এসব জমিতে ধান উৎপাদন হয়েছে ১ কোটি ৭৪ লাখ টন। এখন পর্যন্ত হেক্টরে বোরোর গড় ফলন ৪ দশমিক ২১ টন। গেল কয়েক বছরের ইতিহাসে যা সর্বোচ্চ। কৃষি সংশ্লিষ্টরাও বলছেন, বোরো ধান উৎপাদনে দেশ এবার নতুন রেকর্ডের পথে রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মন্তব্য জানতে চাইলে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. আসাদুল্লাহ সারাবাংলাকে বলেন, ‘এবার বোরো ধানের ফলন বেশি হয়েছে। কারণ হাইব্রিডের উৎপাদন এবার বেড়েছে। নতুন নতুন জাতেরও সম্প্রসারণ ঘটেছে। হাইব্রিড ধানের উৎপাদনই এবার বেড়েছে তিন লাখ হেক্টর। হাইব্রিডের উৎপাদন প্রায় পাঁচ টন করে হয়। ফলে তিন লাখ হেক্টরে প্রায় তিন লাখ টন ধানের উৎপাদন বেড়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এবার আবহাওয়া ভালো ছিল। উৎপাদনে তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি। করোনার মধ্যেও আমরা কৃষককে নানাভাবে সহায়তা করেছি। দেশের ইতিহাসে বোরো ধান বা চালের উৎপাদন এবারই এত বেশি হয়েছে। বোরো ধান উৎপাদনে দেশ এবার রেকর্ডের পথে রয়েছে। করোনার মধ্যে এটি একটি বড় সুখবর।’

বিজ্ঞাপন

কৃষি সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সারাদেশে বোরোর গড় ফলন হয়ে থাকে চার টনের মতো। আর বোরো ধানের উৎপাদন দুই কোটি টন বা তার আশেপাশে থাকে। তবে এ বছর বোরো ধানের উৎপাদন দুই কোটি টন ছাড়িয়ে যাবে। বছরটিতে বোরো ধানের উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রাও দুই কোটি পাঁচ লাখ টন। গেল বছর উৎপাদন হয়েছিল এক কোটি ৯৬ লাখ টন।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের তথ্যমতে, সারাদেশে এবার বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪৮ লাখ ৫ হাজার ২০০ হেক্টর। আবাদ হয়েছিল ৪৮ লাখ ৮৩ হাজার ৭৬০ হেক্টর জমিতে। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে এবার আবাদ বেড়েছে ৭৮ হাজার হেক্টর। সারাদেশে এখন পর্যন্ত ধান কাটা হয়েছে প্রায় ৮৫ শতাংশ জমির। এই জমিতে এখন পর্যন্ত ধানের উৎপাদন হয়েছে ১ কোটি ৭৪ লাখ টন। এখন পর্যন্ত হেক্টরপ্রতি বোরোর গড় ফলন ৪ দশমিক ২১ টন। এ বছর হাইব্রিড ধানের গড় উৎপাদন ৪ দশমিক ৮১ টন, উফশীতে চার টন ও স্থানীয় জাতে ১ দশমিক ৮৪ টন। এখনও ১৫ ভাগ জমির ধান কাটা শেষ হয়নি।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন: হাওরে ধান কাটা শেষের দিকে, ভালো ফলনে খুশি কৃষক

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর থেকে পাওয়া তথ্য মতে, ২০২০ সালে বোরো ধানের গড় ফলন ছিল চার দশমিক ১২ টন ও তার আগের বছর ২০১৯ সালে ছিল ৪ দশমিক শূন্য ৯ টন। সাধারণত বোরো ধানের গড় ফল দেশে ৪ টনের বেশি হয়ে থাকে। এবারও তাই হয়েছে। কিন্তু এবার এখন পর্যন্ত অন্য বারের চেয়ে গড় ফলন অন্তত দশমিক ১০ টন বেশি।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, বোরোতে হাইব্রিড ধানের গড় ফলন সাধারণত ৪ দশমিক ৮ টন থেকে ৪ দশমিক ৯ টন পর্যন্ত। উফশীতে ৩ দশমিক ৫৫ টন থেকে ৩ দশমিক ৯ টন পর্যন্ত। আর স্থানীয় জাতে ফলন সর্বোচ্চ ১ দশমিক ৮ টন পর্যন্ত। সব মিলয়ে জাত ভেদেও এবার ফলন ভালো। এদিকে হাওরের ৭ জেলায় শতভাগ বোরো ধান কাটা শেষ হয়েছে। হাওরে হেক্টর প্রতি ৩ দশমিক ৯০ টন থেকে ৪ দশমিক ৯০ টন পর্যন্ত ধানের ফলন হয়েছে।

এবার বোরোর উৎপাদন ১০ লাখ টন বেশি হবে বলে প্রত্যাশা করছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেছেন, ‘এ বছর বোরোতে ২ কোটি ৫ লাখ মেট্রিক টন চাল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে। গত বছর উৎপাদন হয়েছিল ১ কোটি ৯৬ লাখ টন। আশা করছি গত বছরের তুলনায় কমপক্ষে ১০ লাখ টন উৎপাদন বেশি হবে এবার।’

বিজ্ঞাপন

এছাড়া এবার মৌসুমের শুরুতে ধানের ভালো দামও পেয়েছে কৃষক। মৌসুমের শুরুতে ৮০০ থেকে ৯৫০ টাকা মণে ধান বিক্রির তথ্য পাওয়া গেছে। তবে সম্প্রতি প্রতিমণ ধান ৭৫০ থেকে ৮০০ টাকা মণেও বিক্রি হয়েছে। বাম্পার ফলন আর ধানের দাম পাওয়ায় বছরটিতে কৃষকরাও খুশি।

সারাবাংলা/ইএইচটি/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন