বিজ্ঞাপন

অমির বাসায় লুকিয়ে ছিলেন নাসির

June 14, 2021 | 4:58 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: নায়িকা পরীমনিকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার মামলায় প্রধান আসামি নাসির উদ্দিন মাহমুদসহ পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের গুলশান টিম। সোমবার (১৪ জুন) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ডিবি পুলিশ উত্তরা ১ নম্বর সেক্টরের ১২ নম্বর সড়কের ১৩ নম্বর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয় ।

বিজ্ঞাপন

নাসির উদ্দিন মাহমুদ ছাড়া গ্রেফতাররা হলেন, তুহিন সিদ্দিকী অমি, লিপি আক্তার (১৮), সুমি আক্তার (১৯) ও নাজমা আমিন স্নিগ্ধা (২৪)।

সোমবার ( ১৪ জুন) এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান, ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার হারুন অর রশিদ।

তিনি জানান, উত্তরার বাসাটি অমির বাসা। পরীমনির সংবাদ সম্মেলনের পর থেকে নাসির তার তিন রক্ষিতাকে নিয়ে এ বাসায় পালিয়ে ছিলেন। মাদক রাখার অভিযোগে সে তিন জনকেও আমরা গ্রেফতার করেছি।

বিজ্ঞাপন

ওই বাসাটিতে অভিযান পরিচালনার সময় বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বিদেশি মদ-বিয়ার ও এক হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে গ্রেফতার মেয়েদের দেখানো জায়গা থেকে এসব মাদক উদ্ধার করা হয়।

নাসির প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নাসিরের বিরুদ্ধে আগেও মাদক ও নারী নির্যাতনের মামলা হয়েছে। নানা অভিযোগে তাকে উত্তরা ক্লাব থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে জেনেছি। কেউ তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করলে আমরা সেগুলোর তদন্ত করব।

পরীমনি ক্লাবের সদস্য না হয়েও সেখানে যাওয়ার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে যুগ্ম কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, সে (পরীমনি) স্বনামধন্য নায়িকা। ওখানে (বোট ক্লাব) যেতেই পারেন। গেলে যে তাকে ওখানে হ্যারেজ (হয়রানি) করবে সেটা ঠিক না। আসলে কী ঘটেছে তা বিস্তারিত তদন্ত করে বলতে পারব।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন- অমির ফাঁদে পড়েই ঢাকা বোট ক্লাবে পরীমনি 

সারাবাংলা/ইউজে/এসএসএ

Tags: ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন