বিজ্ঞাপন

‘বাংলাদেশি আইটি পণ্য রফতানি হবে বিদেশেও’

June 14, 2021 | 11:10 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: আগামীতে হাইটেক পার্কগুলোতে উৎপাদিত আইটি পণ্য দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রফতানি হবে বলে মনে করেন বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের নবনিযুক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (১৪ জুন) বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে ‘হাইটেক পার্কের চলমান কার্যক্রম: চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে তিনি এই আশা প্রকাশ করেন। রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সভাকক্ষে এই সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে বিকর্ণ কুমার ঘোষ বলেন, বর্তমানে ডিজিটাল ডিভাইসের দেশীয় চাহিদার ৭৫ শতাংশই আমরা নিজেরা পূরণ করছি। শীঘ্রই দেশের ডিজিটাল ডিভাইসের শতভাগ চাহিদা পূরণ করে আমরা তা বিদেশেও রফতানি করবো। ইতোমধ্যে আমরা কালিয়াকৈরের বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটি’তে উৎপাদিত আইওটি ডিভাইস বিদেশে রফতানি করেছি। খুব অল্প সময়েই সেখানে আরও বেশ কিছু কোম্পানি উৎপাদন শুরু করবে।

বিজ্ঞাপন

এ সময় সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম বলেন, বাংলাদেশে টেকসই হাইটেক ম্যানুফ্যাকচারিং ইকোসিস্টেম নির্মাণের এখনই উপযুক্ত সময়, এক্ষেত্রে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে পারে। কোভিড-১৯ পরবর্তী বৈশ্বিক যে মন্দার ঝুঁকি রয়েছে তা কাটিয়ে উঠতে উদীয়মান অর্থনীতিগুলোর প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে শ্রমনির্ভর অর্থনীতি যথেষ্ট নয়। চলমান পরিস্থিতিতে যেসব দেশ জ্ঞানভিত্তিক ও প্রযুক্তি নির্ভর শিল্পের বিকাশে মনোনিবেশ করছে— তারাই এফডিআই (সরাসরি বৈদেশিক বিনিয়োগ) আকৃষ্ট করতে সমর্থ্য হবে। এই বাস্তবতা উপলব্ধি করে, প্রযুক্তিভিত্তিক অবকাঠামো উন্নয়নে শুরু থেকেই নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ।

এ সময় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের যুগ্মসচিব মো. আখতারুজ্জামানের সঞ্চালনায় সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের পরিচালক (যুগ্মসচিব) এ এন এম সফিকুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/ইএইচটি/এনএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন