বিজ্ঞাপন

আম্পায়ারিং নিয়ে কোনো অভিযোগ পায়নি বিসিবি

June 15, 2021 | 10:35 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটের চলমান আসরের আম্পায়ারিং নিয়ে তদন্ত চালিয়ে কোনো লিখিত অভিযোগ পায়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। লিগে অংশ নেওয়া ১২টি ক্লাবের অধিনায়ক ও ম্যানেজারের সঙ্গে কথা বলেছেন খোদ বিসিবি সভাতি নাজমুল হাসান পাপন। কিন্তু আম্পায়ারিং নিয়ে তাকে কেউই কোনো অভিযোগ দেয়নি।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১৫ জুন) বিসিবি কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত পরিচালনা পর্ষদের ১০ম সভা শেষে তিনি একথা জানান।

বিসিবি বস বলেন, ‘২০১৭’র দিকে অনেক অভিযোগ ছিল। এরপর ক্যামেরা বসানো হলো। কিন্তু এবার এটা নিয়ে অভিযোগ আসার পর প্রথমেই লিগ বন্ধ করার চিন্তা ছিল। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর নামের কারণে এই টুর্নামেন্ট বন্ধ করিনি। অভিযোগ তদন্তের জন্য কমিটি গঠন করে দিয়েছে। এখন পর্যন্ত যে কয়টা ম্যাচ হয়েছে সেগুলোর অধিনায়ক, দলকে ডেকে জিজ্ঞাস করা হয়েছে । সেখানে সই করে যে অভিযোগ দেয় সেখানে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি।’

বিজ্ঞাপন

‘এরপর সবগুলো ক্লাবের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। প্রথমে ৮টি পরের দিন ৪টি মোট ১২টি ক্লাবের সঙ্গে কথা হয়েছে, অধিনায়কের সঙ্গেও কথা হয়েছে। যেটা হয়েছে যে এখন পর্যন্ত, একটা অধিনায়ক; একটা ম্যানেজার বা কারোরই আম্পায়ারিং নিয়ে কোনো অভিযোগ নেই। ওরা বলেছে (সব ক্লাব)। অধিনায়করা নাকি এটাও বলেছে যে তাদের দেখা এটা সেরা টুর্নামেন্ট। কিন্তু একটা ব্যাপার শেষ করা তো সহজ না। তাই বাড়তি দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এই কমিটি সামনে সেই কাজ করবে।’ তিনি যোগ করেন।

গেল ১১ জুন (শুক্রবার) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত মেনে নিতে না পারায় লাথি মেরে স্ট্যাম্প ভেঙ্গে ফেলেন সাকিব আল হাসান। পরে স্ট্যাম্প তুলে আছাড়ও মারেন। ক্রিকেট মাঠে অখেলোয়াড় সুলভ এই আচরণের দায়ে তিন ম্যাচ নিষিদ্ধ ও ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয় সাকিবকে। এই ঘটনার জেরে প্রশ্ন ওঠে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের আম্পায়ারিং নিয়ে। তা তদন্তে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে বিসিবি।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এমআরএফ/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন