বিজ্ঞাপন

প্লাতিনিকে টপকে ইউরোর সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনালদো

June 16, 2021 | 12:36 am

স্পোর্টস ডেস্ক

এতদিন কিংবদন্তি মিশেল প্লাতিনির সমান ৯ গোল নিয়ে যৌথভাবে উয়েফা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের সর্বোচ্চ গোলদাতা ছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। তবে ২০২০ ইউরোর প্রথম ম্যাচেই হাঙ্গেরির বিপক্ষে জোড়া গোল করে প্লাতিনিকে টপকে এককভাবে সর্বোচ্চ গোলদাতা বনে গেলেন পাঁচ বারের ব্যালন ডি অর জয়ী এই ফরোয়ার্ড। এদিকে একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে এদিন সর্বোচ্চ পাঁচটি ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে খেলতে নামেন রোনালদো।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন: রোনালদোর জোড়া গোলে জয়ে শুরু পর্তুগালের ইউরো

মঙ্গলবার (১৫ জুন) হাঙ্গেরির বুদাপেস্টের পুস্কাস অ্যারেনায় ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা ধরে রাখার মিশনে মাঠে নামে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল। ম্যাচের ৮০ মিনিট পর্যন্ত পর্তুগালকে আটকে রাখলেও শেষ ১০ মিনিটে রোনালদোদের আর রুখতে পারেনি হাঙ্গেরি। রাফায়েল গুয়েরোর ৮৪ মিনিটের গোলে প্রথমে লিড নেয় পর্তুগাল। এর মিনিট তিনেক পরে পেনাল্টি থেকে গোল করে লিড দ্বিগুণ করেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। আর যোগ করা অতিরিক্ত সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে আরও এক গোল করে দলকে ৩-০ ব্যবধানের জয় এনে দেন পর্তুগিজ অধিনায়ক।

বিজ্ঞাপন

প্লাতিনিকে টপকে ইউরোর সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনালদো

ইউরোতে ৩৬ বছর বয়সী রোনালদোর গোল এখন সর্বোচ্চ ১১টি। পাঁচ আসরে সবমিলিয়ে তিনি খেলেছেন ২২ ম্যাচ।

বিজ্ঞাপন

৮৬তম মিনিটে ব্রুনোর বাড়ানো বল নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন রাফা। তবে তাকে পেছন থেকে ফাউল করে ফেলে দেওয়ায় পেনাল্টি পায় পর্তুগাল। ৮৭তম মিনিটে গুলাচসিকে ভুল দিকে পাঠিয়ে বল জালে জড়িয়ে এবারের ইউরোতে নিজের প্রথম গোল করেন রোনালদো। সেই সঙ্গে দলের লিড দ্বিগুণ করেন অধিনায়ক।

এরপর যোগ করা অতিরিক্ত সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে রাফা সিলভার অ্যাসিস্ট থেকে দলের তৃতীয় এবং নিজের দ্বিতীয় গোল করেন রোনালদো। রাফার সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়া করে ডি বক্সের ডান দিকে ঢুকে পড়েন রোনালদো আর সেখান থেকেই বল জালে জড়িয়ে পর্তুগালের ৩-০ ব্যবধানের জয় নিশ্চিত করেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

বিজ্ঞাপন

প্লাতিনিকে টপকে ইউরোর সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনালদো

২০০৪ সালে প্রথম ইউরোতে খেলতে নামেন রোনালদো। সেবার রানার্সআপ হওয়া পর্তুগাল দলের হয়ে দুটি গোল করেছিলেন তরুণ রোনালদো। ২০০৮ ইউরোতে মাত্র একটি গোল করেছিলেন রোনালদো। পরেরবার ২০১২ ইউরোতে তিনটি আর ২০১৬ সালে পর্তুগালকে প্রথমবারের মতো ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ এনে দেওয়ার সময় করেন তিনটি গোল।

বিজ্ঞাপন

আর ২০২০ ইউরোর প্রথম ম্যাচেই হাঁকালেন জোড়া গোল। তাতেই তাঁর গোলসংখ্যা দাঁড়াল মিশেল প্লাতিনিকে ছাড়িয়ে ১১টিতে। এদিকে আন্তর্জাতিক ফুটবলের সর্বকালের সেরা গোলদাতার রেকর্ডও নিজের দখলে নেওয়ার খুব কাছেই পৌঁছে গেছেন রোনালদো। পর্তুগালের জার্সিতে ১৭৬ ম্যাচে তার গোল ১০৬টি। এই তালিকায় সবার উপরে থাকা ইরানের আলী দাইয়ের নামের পাশে রয়েছে ১০৯ গোল।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন