বিজ্ঞাপন

৬৬-তে পা অভীক ওসমানের

June 28, 2021 | 12:04 am

সারাবাংলা ডেস্ক

চট্টগ্রাম ব্যুরো: অভীক ওসমান একাধারে কবি, আবার নাট্যকার। একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা, রাজনীতির অঙ্গনেও সমান বিচরণ। ৬৬-তে পা দিয়েছেন চট্টগ্রামের সাহিত্য-সংস্কৃতি অঙ্গনের পরিচিত এই মুখ।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (২৮ জুন) ছিল অভীক ওসমানের ৬৫ তম জন্মদিন। ১৯৫৬ সালে চট্টগ্রামের চন্দনাইশের বরমায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

সত্তর দশকের তুখোড় ছাত্রনেতা অভীক ওসমান ‘দেশ কৃষ্টি’ গ্রন্থবিরোধী আন্দোলন এবং একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন। ছাত্রজীবন থেকেই সাহিত্য চর্চায় নিজেকে নিবিষ্ট রেখেছেন। গদ্য গবেষণা-মুক্তিযুদ্ধ-মনীষীদের জীবন ও কর্ম সম্পাদনা, নাটক, কবিতা নিয়ে তার প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ১৮।

বিজ্ঞাপন

বর্তমানে তিনি নিওনরমাল ইকোনমি, একবিংশের বৈশ্বিক ও সামগ্রিক অর্থনীতির ওপর লেখালেখি করছেন। তিনি চবি নাট্যকলা বিভাগ, চসিক সাহিত্য পুরস্কারসহ বিভিন্ন পদক ও সন্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের অতিথি শিক্ষক হিসেবেও আছেন তিনি। যুক্ত আছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) রাজনীতির সঙ্গেও।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, কর্মজীবন শুরু করেন শিক্ষকতা দিয়ে। পরবর্তীতে করপোরেট জগতেও প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন। চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সচিব ও প্রধান নির্বাহী হিসেবে তিন দশক দায়িত্ব পালন করেছেন। এসময় নির্বাহী হিসেবে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার নির্মাণ, বাণিজ্যমেলা আয়োজনসহ নানাক্ষেত্রে ভূমিকা রাখেন।

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম চেম্বারে তিনি জার্মান বিভিন্ন প্রকল্প, ওয়ার্ল্ড ব্যাংক, নেদারল্যান্ডসের পাম প্রকল্পের প্রধান ছিলেন। এছাড়া জাপান, আমেরিকাসহ এশিয়ার দেশগুলোতে বিভিন্ন ফেলোশিপ নিয়ে ম্যানেজমেন্ট, ইনফরমেশন ডিসিমিনেশন, মানবসম্পদ বিষয়ে বিভিন্ন কোর্স সম্পন্ন করেন। একইসময় তিনি ক্ষুদ্র ও মাঝারি নারী শিল্পোদ্যাক্তাদের বিকাশে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখেন। বর্তমানে তিনি জিপিএইচ ইস্পাতের মিডিয়া অ্যাডভাইজার হিসেবে কর্মরত আছেন।

জন্মদিন উপলক্ষে সারাবাংলার সঙ্গে আলাপে অভীক ওসমান বলেন, ‘জীবনযাপনের তাগিদে যা-ই কিছু করি না কেন, লেখালেখি-নাটককেই আমি সবকিছুর সামনে রেখেছি। অতিমারির কারণে আমাদের সবার জীবনযাত্রায় নানা ধরনের স্থবিরতা এসেছে। লেখালেখির মধ্য দিয়ে সেই সময়টুকু পার করছি। এদেশের তরুণ সমাজকে নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন। তারা শিক্ষাদীক্ষা, জ্ঞান-মেধায়, যুক্তিতে অনন্য প্রতিভার স্বাক্ষর রাখবে। প্রগতিশীল সমাজ বিনির্মাণে তারা ভূমিকা রাখবে। আমি অতিমারির সময়ে সবার সুরক্ষা কামনা করছি।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরডি/পিটিএম

বিজ্ঞাপন

Tags: ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন