বিজ্ঞাপন

ভ্যাকসিন কূটনীতিতে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ: জিএম কাদের

July 13, 2021 | 10:06 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেট

ঢাকা: জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেছেন, ভ্যাকসিন কূটনীতিতে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। বিশ্বের সব দেশ যখন করোনার ভ্যাকসিন দিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে ফেলেছে, তখনও আমাদের করোনার ভ্যাকসিনের পূর্ণ নিশ্চয়তা মেলেনি। মাস্ক পড়ে আর সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে করোনা মোকাবিলা সম্ভব হবে না।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তরের বিভিন্ন থানা কমিটির নেতাদের সঙ্গে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুবাষির্কী উপলক্ষে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে ভবিষ্যতে এই অবস্থা আরও খারাপ হতে পারে। সময় মতো মানুষকে করোনার ভ্যাকসিন দিতে ব্যার্থ হওয়ায় করোনা পরিস্থিতি এতটা খারাপ হয়েছে।’

বিজ্ঞাপন

জিএম কাদের বলেন, ‘এদেশে কখনোই লকডাউন সফল হবে না। কারণ, দেশের বেশির ভাগ মানুষেরই ঘরে খাদ্য নেই, পকেটে পয়সা নেই। খাদ্য সহায়তা না দিলে ক্ষুধার্ত মানুষ ঘরের বাইরে বের হবেই। শুরু থেকেই আমরা লকডাউনের আগে দরিদ্র মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিতে বলেছি। সদিচ্ছার অভাবে সরকার হতদরিদ্র মানুষের জন্য খাদ্য সহায়তা দেয়নি।’

কাদের সাধারণ মানুষের প্রতি আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ দেখেছেন। দেশের কল্যাণে তারা কিছুই করতে পারেনি। তাই পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জাতীয় পার্টির পতাকাতলে শামিল হোন। ৯০ সালের পর থেকে দুটি দলের ব্যবহারে মানুষ বিরক্ত হয়ে পড়েছে। তারা এক বুক আশা নিয়ে জাতীয় পার্টির দিকে তাকিয়ে আছে। দেশের মানুষ আবারও পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় দেখতে চায়। ৯০ সালের পর প্রতিটি সরকারই জাতীয় পার্টির ওপরে আঘাত করেছে। কিন্তু মানুষের আস্থা ও ভালোবাসায় পার্টি এখনও মানুষের মাঝে টিকে আছে।’

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ছিলেন গণমানুষের ভালোবাসায় জননন্দিত নেতা। অপবাদ দিয়ে তাকে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে দূরে ঠেলে দেওয়া যায়নি। প্রতিটি নির্বাচনে তিনি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। তার মৃত্যুর পরে চারটি জানাজায় মানুষের যে ঢল নেমেছে তাতে প্রমাণ হয়েছে দেশের মানুষ কতটা ভালোবেসেছেন পল্লীবন্ধুকে। আগামীতে জাতীয় পার্টির উজ্জল ভবিষ্যত রয়েছে।’ তাই দলকে আরও শক্তিশালী করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান জাপা চেয়ারম্যান।

জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য মো. শফিকুল ইসলাম সেন্টুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাপার মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, প্রেসিডিয়াম সদস্য মীর আব্দুস সবুর আসুদ, শফিকুল ইসলাম সেন্টু, উপদেষ্টা- মনিরুল ইসলাম মিলন, আমানত হোসেন আমানত, ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম পাঠান, যুগ্ম মহাসচিব মো. সামসুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক নাসির উদ্দিন সরকার, সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, আনোয়ার হোসেন তোতা, আনিস উর রহমান খোকন, প্রচার সম্পাদক মাসুদুর রহমান মাসুম, দফতর সম্পাদক-২ এম.এ. রাজ্জাক খান, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম মিন্টু, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন মিলন, কেন্দ্রীয় সদস্য হাওলাদার মহিদুল ইসলাম, এলাহান উদ্দিন, মো. আলমগীর হোসেন ও ঢাকা মহানগর উত্তরের সব থানার সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক।

বিজ্ঞাপন

এর আগে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে পার্টির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মামুনুর রহিম সুমন আয়োজনে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

সারাবাংলা/এএইচএইচ/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন