বিজ্ঞাপন

ভারতে ২০ লাখ হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট বন্ধ

July 16, 2021 | 3:02 pm

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

ভারতে গুজব ঠেকাতে ২০ লাখ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশন হোয়াটসঅ্যাপ।

বিজ্ঞাপন

এদের মধ্যে ৯৫ শতাংশের অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়েছে কেবলমাত্র মেসেজ ফরোয়ার্ডিং সংক্রান্ত নীতিমালা না মানার কারণে। বাকি পাঁচ শতাংশের মধ্যে রয়েছে ভুয়া অ্যাকাউন্ট এবং রিপোর্টেড অ্যাকাউন্ট।

এ ব্যাপারে হোয়াটসঅ্যাপ জানিয়েছে, গুজব ছড়ানোর সঙ্গে জড়িত অ্যাকাউন্টগুলোকে মেশিন লার্নিং সিস্টেমের মাধ্যমে শনাক্ত করে বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। তারা আবার নতুন করে অ্যাকাউন্ট খুলতে গেলে গেলে তাও শনাক্ত হচ্ছে। পাশাপাশি, অন্যান্য হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের রিপোর্টের ভিত্তিতেও অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

এদিকে, তথ্যে অসঙ্গতি থাকায় ২০ শতাংশ রেজিস্ট্রেশন আটকে দিয়েছে বলে জানিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। পাশাপাশি রেজিস্ট্রেশন বাতিলের সময় ব্যবহারকারীর আইপি অ্যাড্রেস, কোন অঞ্চলের ফোন নম্বর দিয়ে সাইন আপ করা হচ্ছে, বয়স এবং মেসেজিংয়ের ধরনের ওপর নজর রাখা হচ্ছে।

সম্প্রতি ভারতে গুজব ছড়ানোর মাধ্যম হিসেবে হোয়াটসঅ্যাপের ব্যবহার মাত্রাতিরিক্ত বেড়েছে। তাই, গুজব ঠেকাতে মেসেজ ফরোয়ার্ড করার ক্ষেত্রে ভারতীয়দের জন্য কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

বিজ্ঞাপন

এই নতুন নিয়ম অনুযায়ী, যে কোনো মেসেজ সর্বোচ্চ পাঁচ জনকে ফরোয়ার্ড করা যাবে। তার বেশি অ্যাকাউন্টে ফরোয়ার্ড করতে চাইলে বাটন আর কাজ করবে না। ব্যবহারকারীদের এরকম প্রবণতা একটি নির্দিষ্ট পর্যায় অতিক্রম করলেই অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়ার মতো কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ।

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন