বিজ্ঞাপন

৫৪ জেলার শিক্ষার্থীদের বাড়ি পৌঁছে দিল জবি

July 19, 2021 | 5:24 pm

জবি করেসপন্ডেট

ঢাকা: করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারিকালে নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থায় শিক্ষার্থীদের বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি)। এই বিশেষ বাস সার্ভিসের আওতায় প্রায় তিন হাজার শিক্ষার্থীকে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

চলতি মাসের ১৭-১৯ জুলাই ২৮টি বাসের মাধ্যমে দেশের ৫৪ জেলায় প্রায় তিন হাজার শিক্ষার্থীদের নিরাপদে বাড়ি পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হয়। সোমবার (১৯ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক আব্দুল্লাহ-আল-মাসুদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এ বিষয়ে অধ্যাপক আব্দুল্লাহ-আল-মাসুদ বলেন, তিনদিনে ৫৪ জেলায় প্রায় তিন হাজার শিক্ষার্থীকে বাড়ি পৌঁছানো হয়েছে। প্রথমদিন ২৩টি বাস, দ্বিতীয় দিন ১০টা দোতলা বাস আর ১টা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব বাস এবং আজ (সোমবার) শেষদিন ৯টা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব বাস গন্তব্যের উদ্দেশে ছেড়ে গেছে।

বিজ্ঞাপন

এই সার্ভিসের আওতায় গত শনিবার (১৭ জুলাই) টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, নাটোর, চাপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহী, নারায়নগঞ্জ, নরসিংদী, কিশোরগঞ্জ (ভৈরব), বি-বাড়ীয়া, হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার, সিলেট, সুনামগঞ্জ, বগুড়া, নওগাঁ, গাইবান্ধা, জয়পুরহাট, সৈয়দপুর, রংপুর, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়, নীলফামারী, দিনাজপুর, লালমনিরহাট ও কুড়িগ্রাম জেলায় শিক্ষার্থীদের পৌঁছে দেয় জাবি’র বাস।

৫৪ জেলার শিক্ষার্থীদের বাড়ি পৌঁছে দিল জবি

বিজ্ঞাপন

 

পরদিন রোববার (১৮ জুলাই) বরিশাল, ঝালকাঠি, পটুয়াখালী, বরগুনা, পিরোজপুর, শরীয়তপুর, মাদারীপুর, মানিকগঞ্জ, রাজবাড়ী, ফরিদপুর, মাগুড়া, ঝিনাইদহ, চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর, কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনা, গোপালগঞ্জ, বাগেরহাট এবং আজ (সোমবার) ময়মনসিংহ, শেরপুর, নেত্রকোনা,জামালপুর, কুমিল্লা, ফেনী, লক্ষীপুর, চাঁদপুর ও চট্রগ্রাম জেলায় শিক্ষার্থীদের বাড়ি পৌঁছাতে বাস ছেড়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

তবে নওগাঁ, জয়পুরহাট, নড়াইল, ভোলা, সুনামগঞ্জ, শরীয়তপুর, খাগড়াছড়ি, বান্দরবন, কক্সবাজার ও রাঙ্গামাটি এই ১০টি জেলায় যায়নি জবি’র বাস।

শিক্ষার্থীদের নিয়ে বাস ছাড়ার যাওয়ার সময় বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইমদাদুল হক, প্রক্টরিয়ার বডি, পরিবহণ প্রশাসক ও ছাত্র কল্যাণের পরিচালক উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, চলমান করোনা মহামারির মধ্যে আসন্ন ঈদুল-আজাহায় শিক্ষার্থীদের নিরাপদে গ্রামে পৌঁছে দিতে প্রশাসন বরাবর আবেদন করেছিল সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এ কারণে শিক্ষার্থীদের বাসায় যাওয়ার জন্য আবেদন করার আহ্বান করেছিল বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। গত ১৩ তারিখ পর্যন্ত প্রায় তিন হাজার ৬০০ জন শিক্ষার্থীর আবেদন জমা হয়েছিল।

শিক্ষার্থীদের পৌঁছে দিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রেশাসন নিজস্ব পরিবহন ছাড়াও বিআরটিসির বাস ভাড়া করেন। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পরিকল্পনা অনুযায়ী, গত শনিবার রাজশাহী, সিলেট এবং রংপুর বিভাগে; গতকাল রোববার বরিশাল ও খুলনা বিভাগে এবং আজ সোমবার ময়মনসিংহ ও চট্রগ্রাম বিভাগের শিক্ষার্থীদের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয়।

সারাবাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন