বিজ্ঞাপন

খাদ্য ও পুষ্টির সুরক্ষা নিয়ে ইনোভিশনের ওয়েবিনার কাল

July 28, 2021 | 9:40 pm

সারাবাংলা ডেস্ক

বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি তথা সুবর্ণজয়ন্তীতে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির অর্জনকে উদযাপন করছে আন্তর্জাতিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ইনোভিশন কনসালটিং প্রাইভেট লিমিডেট। এরই অংশ হিসেবে ‘বাংলাদেশের বিস্ময়: বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রগতির ৫০ বছর উদযাপন’ শিরোনামে সিরিজ ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আর এই সিরিজের পরবর্তী ওয়েবিনারটির বিষয় খাদ্য নিরাপত্তা ও পুষ্টি সুরক্ষা।

বিজ্ঞাপন

ইনোভিশন কনসালটিং ও গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ইম্প্রোভড নিউট্রিশনের (জিএআইএন) উদ্যোগে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) বিকেল ৩টায় শুরু হবে এই ওয়েবিনার। ‘খাদ্য সুরক্ষা থেকে পুষ্টি সুরক্ষা: ভবিষ্যৎ লক্ষ্যে পৌঁছাতে কতটা প্রস্তুত বাংলাদেশ’ শিরোনামে দেড় ঘণ্টার ওয়েবিনারটি চলবে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত।

ইনোভিশন প্রেজেন্টস বাংলাদেশ মিরাকলের ফেসবুক পেজ ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল সারাবাংলা ডটনেটের ফেসবুক পেজ থেকে সরাসারি সম্প্রচার করা হবে এই ওয়েবিনার। www.facebook.com/InnovisionpresentsBangladeshMiracle/posts/127945176184969 লিংক থেকেও দেখা যাবে ওয়েবিনারটি।

বিজ্ঞাপন

‘খাদ্য সুরক্ষা থেকে পুষ্টি সুরক্ষা: ভবিষ্যৎ লক্ষ্যে পৌঁছাতে কতটা প্রস্তুত বাংলাদেশ’ শিরোনামের ওয়েবিনারে আলোচনার জন্য প্যানেলিস্ট হিসেবে থাকবেন জিএআইএন’র কান্ট্রি ডিরেক্টর রুবাডা খন্দকার, প্রোগ্রাম লিড পেনজানি কামবুলা ও সিনিয়র পলিসি অ্যাসোসিয়েট মন্দিরা গুহা নিয়োগী।

আলোচনায় আরও যুক্ত থাকবেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. এম ডি আবুল আলিম, বিএসআইসি’র জেনারেল ম্যানেজার অখিল রঞ্জন তরফদার, বাংলাদেশের স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ন্যাশনাল নিউট্রিশন সার্ভিসের লাইন ডিরেক্টর ড. এস এম মুস্তাফিজুর রহমান, ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রামের হেড অব প্রোগ্রাম রেজাউল করিম, ইনোভিশন কনসালটিং প্রাইভেট লিমিটেডের টিম লিডার ড. আনিকা তাহসিন খান, ইনোভেশন এমপাওয়ার সোস্যাল এন্টারপ্রাইজের পরিচালক জাকি হায়দার, সুচনার চিফ অব পার্টি ড. শেখ শাহেদ রহমান, নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পাবলিক হেলথের অধ্যাপক ড. আহমেদ হোসেন ও কেয়ার নিউট্রিশন লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এডি বার্নট।

বিজ্ঞাপন

ইনোভিশন কনসালটিংয়ের আয়োজনে এই উদ্যোগের অনলাইন নিউজ পার্টনার সারাবাংলা ডটনেট। ইনোভিশন কনসালটিংয়ের প্রত্যাশা, এই আয়োজন দৃঢ় ও সমৃদ্ধ জাতি গঠনে কিছুটা হলেও ভূমিকা রাখবে।

সারাবাংলা/আরএফ/সারাবাংলা/আরএফ/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন