বিজ্ঞাপন

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট জলবসন্তের মতো ছড়ায়

July 30, 2021 | 4:19 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

করোনাভাইরাসের ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট জলবসন্তের মতোই অতিসংক্রামক। যুক্তরাষ্ট্রে এ ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্তরা মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। দেশটির সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের (সিডিসি) এক অভ্যন্তরীণ নথিতে এমনটাই উল্লেখ করা হয়েছে। এ নথির তথ্য প্রকাশ করেছে সিএনএন।

বিজ্ঞাপন

নথিতে উল্লেখ রয়েছে, ভ্যাকসিন না নেওয়া ব্যক্তিদের মতোই ভ্যাকসিন গ্রহীতারাও ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট সমান হারে ছড়াতে পারেন।

সিডিসির পরিচালক ডা. রোশেল ওয়ালেনস্কি সিএনএন’কে এ নথির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি মানুষের এটি বুঝা উচিত যে, আমরা অযথা চিৎকার করছি না। বিষয়টি গুরুতর। আমাদের জানা ভাইরাসগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম সংক্রামক ভাইরাস। জলবসন্ত বা হাম যেমন দ্রুত ছড়ায় ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টও তেমন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে’।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য যে, এর আগে সিডিসি ভ্যাকসিনের পূর্ণাঙ্গ ডোজ গ্রহীতাদের মাস্ক পরার বাধ্যবাধকতা উঠিয়ে নিয়েছিল। তবে সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার দ্রুত বাড়ছে। গত বছরের একই সময়ের চেয়েও এবারের গ্রীষ্মে আক্রান্তের হার বেশি। এতে আবারও সকলকে মাস্ক পরার তাগিদ দিয়েছে সিডিসি।

সিডিসির ওই নথিতে উল্লেখ রয়েছে, জলবসন্তের মতো অতিসংক্রামক ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত প্রতি ব্যক্তি আরও আট থেকে নয়জনকে আক্রান্ত করেন।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য যে, সিডিসির বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আক্রান্ত হলে ভ্যাকসিন গ্রহীতাদের শরীরেও ভ্যাকসিন না নেওয়া ব্যক্তিদের সমান করোনাভাইরাস থাকতে পারে। তবে ভ্যাকসিন গ্রাহকরা নিজে মারাত্মক অসুস্থ হওয়া থেকে রক্ষা পেতে পারেন। যেহেতু অন্য আক্রান্তের সংস্পর্শে এসে আক্রান্ত হলে ভ্যাকসিন গ্রহীতাদের শরীরেও করোনাভাইরাসের উপস্থিতি থাকে, তাই ভ্যাকসিন গ্রহীতারাও এ ভাইরাস অন্যদের মতোই ছড়াতে সক্ষম।

ওই নথিতে বলা হয়, ভ্যাকসিন ৯০ শতাংশ মারাত্মক অসুস্থতা থেকে রক্ষা করে। তবে সংক্রমণ ও ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা কম। ফলে ভ্যাকসিন দেওয়ার পরও অনেকে আক্রান্ত হচ্ছেন এবং গোষ্ঠী সংক্রমণ বাড়ছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আইই

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন